জিডি বিড়লা-কাণ্ডে নিগৃহীত শিশুটির সাক্ষ্যগ্রহণ দিয়ে ওই মামলার বিচার-প্রক্রিয়া শুরু হল। শুক্রবার আলিপুরের বিশেষ পকসো আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক সুধীর কুমারের এজলাসে শিশুটির সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। সরকারি আইনজীবীদের দাবি, হাইকোর্টের নির্দেশে বাড়ির পরিবেশ বজায় রেখে সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে। বিচারক বা সরকারি আইনজীবীরা কেউই আদালতের কালো পোশাকে ছিলেন না। বিচারক তাঁর ঘরেই শিশুটির সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। বিকেল তিনটে থেকে চারটে এই পর্ব চলে।

মুখ্য সরকারি আইনজীবী রাধাকান্ত মুখোপাধ্যায় জানান, প্রথম পর্যায়ে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মামলার দুই অভিযুক্তকে শনাক্ত করেছে শিশুটি। তবে কিছু ক্ষণ সাক্ষ্য দেওয়ার পরে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। আগামী ৩০ জুলাই পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য করেছেন বিচারক। অভিযুক্তদের আইনজীবী জয়িষ্ণু বসু বলেন, ‘‘হাইকোর্টে অভিযুক্তদের জামিনের আবেদন করা হয়েছে।’’