টালা সেতুর ভবিষ্যৎ কী, তার উত্তর অজানা। তবে সেতুর উপরে যান নিয়ন্ত্রণের কারণে যানজটের ভোগান্তি থেকে নিস্তার পেতে বিকল্প রাস্তা খুঁজে বার করতে এখন মরিয়া পুলিশ। সোমবারের পর ফের বুধবারও সেই বিকল্প রাস্তা খুঁজতে কাশীপুর, চিৎপুর এবং টালা সেতু সংলগ্ন এলাকা ঘুরে দেখেন কলকাতা ট্র্যাফিক পুলিশের আধিকারিকেরা।

লালবাজার জানিয়েছে, ওই এলাকায় রেললাইনের উপর দিয়ে ঢালাই রাস্তা-সহ অস্থায়ী লেভেল ক্রসিং নির্মাণ করা যায়, এ রকম বেশ কয়েকটি রাস্তা এ দিন ঘুরে দেখেন কলকাতা ট্র্যাফিক পুলিশের ডিসি সন্তোষ পাণ্ডে। সম্ভাব্য লেভেল ক্রসিং রয়েছে যে সব এলাকায়, তা-ও এ দিন পরিদর্শন করেন ট্র্যাফিক পুলিশের আধিকারিকেরা। তবে কোনও রাস্তাই চুড়ান্ত হয়নি।

পুলিশের একটি অংশ জানিয়েছে, অনেক সম্ভাবনার মধ্যেই চিৎপুর সেতু এবং চিৎপুর লকগেট সেতুর নীচের রেললাইনে লেভেল ক্রসিং করা যায় কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। রেললাইনের এক ধারে চিৎপুরের দিকে রয়েছে ব্রজ দয়াল শাহ রোড। বাগবাজারের দিকে রয়েছে শেঠপুকুর রোড এবং পঞ্চানন মুখার্জি রোড। চিৎপুর এবং টালা পার্কের দিক থেকে ব্রজ দয়াল শাহ রোড দিয়ে ওই এলাকায় পৌঁছনো যায়। মূলত এখন সেখানে রেলের পণ্যবাহী গাড়ি চলে। আবার অন্য দিকে, শেঠ পুকুর রোড, পঞ্চানন মুখার্জি, প্রাণকৃষ্ণ মুখার্জি রোড হয়ে বিটি রোড বা বাগবাজারের দিকে যেতে পারবে গাড়ি। পুলিশ জানিয়েছে, তবে সেখানে লেভেল ক্রসিং হলে তা হবে রেলের সার্কুলার লাইন এবং রেল ইয়ার্ডের উপরে। সেই রাস্তা তৈরির জন্য ভাঙতে হতে পারে একটি নুনের গুদাম।

পুলিশকর্তাদের দাবি, বিকল্প ভাবনার পুরোটাই এখনও প্রাথমিক পর্যায়েই রয়েছে।