• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিদেশের ফোন নম্বর বদলে প্রতারণা, ধৃত দুই

Mobile
প্রতীকী ছবি

বিদেশ থেকে আসা ফোনকে দেশীয় নম্বরে বদলে দিয়ে বিপুল অঙ্কের রাজস্ব ক্ষতি হচ্ছিল। টেলিকম দফতর, পশ্চিমবঙ্গ শাখার এমন অভিযোগ পেয়ে সোমবার পাঁচ নম্বর সেক্টরের একটি অফিসে হানা দেয় বিধাননগর সাইবার থানার পুলিশ। গ্রেফতার করা হয় দুই ব্যক্তিকে। ধৃতদের নাম মোহিত সিংহ এবং মহম্মদ সাদাব। মঙ্গলবার তাদের বিধাননগর আদালতে তোলা হলে ৩ অক্টোবর পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।

পুলিশ জানিয়েছে, সম্প্রতি এই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে একটি চক্রের সন্ধান পাওয়া যায়। জানা যায়, শুধু বিদেশ থেকে আসা ফোন নম্বরকে দেশীয় নম্বরে বদলে দেওয়াই নয়, এর সাহায্যে অবৈধ ভাবে কল সেন্টারের ব্যবসাও চলছিল। এর পরেই সোমবার পাঁচ নম্বর সেক্টরের ওই অফিসে অভিযান চালানো হয়। মোহিত এবং সাদাবকে আটক করে চলে জিজ্ঞাসাবাদ। কিন্তু বয়ানে অসঙ্গতি মেলায় তাঁদের গ্রেফতার করা হয়। সিল করে দেওয়া হয়েছে অফিসটিও।

পুলিশ সূত্রের খবর, ধৃতদের কাছ থেকে একটি সার্ভার, একটি ল্যাপটপ, চারটি মোবাইল, একাধিক ডেবিট কার্ড এবং বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ নথি বাজেয়াপ্ত হয়েছে। তদন্তকারীরা জানান, স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় বিদেশ থেকে দেশে অথবা এ দেশ থেকে বিদেশে ফোন করার খরচ অনেক বেশি। অবৈধ পথে সেই ব্যবসা চলছিল বলে তাঁদের অনুমান। রোহিত এবং সাদাব এই প্রতারণা-চক্রের অন্যতম মাথা বলে উঠে এসেছে তদন্তে।

পুলিশের ধারণা, এই চক্রে আরও বেশ কয়েক জন জড়িত। তাঁদের খোঁজ পেতে ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। সাইবার আইন-বিশেষজ্ঞ তথা আইনজীবী বিভাস চট্টোপাধ্যায় জানান, এই ধরনের ঘটনা আগেও ঘটেছে। বিনা অনুমতিতে দেশের সম্পত্তি ব্যবহার করায় রাজস্ব ক্ষতি হচ্ছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন