• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বন্ধ ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার মহিলার ঝুলন্ত দেহ

Suicide
প্রতীকী ছবি।

ঘরের দরজা ভিতর থেকে বন্ধ। তা ভেঙে ভিতরে ঢুকে পুলিশকর্মীরা দেখলেন, ঘরের এক কোণে বাঁধা রয়েছে স্পিৎজ প্রজাতির একটি কুকুর। আর তার পাশের ঘরে সিলিং থেকে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় ঝুলছেন পোষ্যটির মালকিন! শুক্রবার দুপুরে, বরাহনগরের গোপাললাল ঠাকুর রোডের ঘটনা। পুলিশ জানিয়েছে, মৃতার নাম পায়েল দত্ত (৪০)। তবে ঘর থেকে কোনও সুইসাইড নোট উদ্ধার হয়নি বলেই দাবি তদন্তকারীদের।

পুলিশ সূত্রের খবর, গোপাললাল ঠাকুর রোডের একটি আবাসনের দোতলার ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন পশুপ্রেমী পায়েল। একই এলাকায় তাঁর আত্মীয়েরা থাকলেও কারও সঙ্গেই তাঁর তেমন যোগাযোগ ছিল না। প্রতিবেশীরা মাঝেমধ্যে তাঁকে দু’টি কুকুর নিয়ে রাস্তায় বেরোতে দেখতেন। 

এ দিন দুপুরে পায়েলের এক বন্ধু ওই ফ্ল্যাটে আসেন। ডাকাডাকির পরেও দরজা না খোলায় বরাহনগর থানায় খবর দেন তিনি। এর পরে পুলিশ ও দমকল এসে দরজা ভেঙে ওই মহিলার দেহ উদ্ধার করে। স্থানীয় বাসিন্দা হীরু দাস বলেন, ‘‘বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ওই মহিলাকে আর এলাকায় দেখিনি। আজ শুনলাম, দরজা ভিতর থেকে বন্ধ। পরে পুলিশ এসে মৃতদেহ বার করল। উনি এলাকার লোকজনের সঙ্গে তেমন মিশতেন না।’’

আরও পড়ুন: কর্মস্থলে ‘যৌন হেনস্থা’, বিচারকের দ্বারস্থ মহিলা

পায়েলের ওই বন্ধুর থেকে তদন্তকারীরা জেনেছেন, স্পিৎজ ছাড়াও ল্যাব্রাডর প্রজাতির আর একটি কুকুর ছিল পায়েলের। গত শনিবার সেই কুকুরটির মৃত্যুর পর থেকেই মানসিক যন্ত্রণায় ভুগছিলেন পায়েল। খাওয়াদাওয়াও প্রায় ছেড়ে দিয়েছিলেন। ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল তাঁকে। কিন্তু পোষ্যের মৃত্যু কিছুতেই মানতে পারছিলেন না পায়েল। পুলিশ একটি অস্বাভাবিক মৃত্যু মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন