মেয়ে-জামাই নাকি জাল নোট পাচারের কাজে যুক্ত। মা তার প্রতিবাদ করায় তাঁকে মারধর করে বঁটি দিয়ে কোপানোর অভিযোগ উঠল মেয়ের বিরুদ্ধে। বুধবার রাতে ওই ঘটনা ঘটে নরেন্দ্রপুর থানা এলাকার দক্ষিণ কাঠিপোঁতায়। অমিতা সাউ নামে ওই মহিলা এমনই অভিযোগ দায়ের করেছেন থানায়। 

তাঁর অভিযোগ, মেয়ে সুনীতা ও জামাই তাজেশ শেখ মালদহ এবং মুর্শিদাবাদ থেকে জাল নোট নিয়ে এসে পাচার করছিল। সেই কারণেই সপ্তাহখানেক আগে তাদের বাড়ি থেকে চলে যেতে বলেছিলেন তিনি। মহিলার অভিযোগ, এর পরেই বুধবার রাতে মেয়ে তাঁর উপরে হামলা চালায়। 

অমিতা জানান, বছর তিনেক আগে নরেন্দ্রপুর থানার নবগ্রামে মেয়ে ও জামাইকে নিয়ে ভাড়া বাড়িতে থাকতেন তিনি। ওই সময়ে পাঁচশো টাকার একটি জাল নোট পাচার করতে গিয়ে ধরা পড়ে সুনীতা। পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয় তাকে। এর পরেই নবগ্রামের ভাড়া বাড়ি ছেড়ে কাঠিপোঁতা এলাকায় জমি কিনে বাড়ি করেন অমিতা। তিনি জানান, মেয়ে-জামাই জাল নোটের কারবার ছেড়ে দিয়েছে বলে দাবি করে ফের তাঁর বাড়িতে এসে ওঠে। বছরখানেক ধরে সেখানেই আছে তারা। অভিযোগ, সপ্তাহ দুয়েক আগে অমিতা জানতে পারেন, ফের জাল নোটের কারবার করছে মেয়ে-জামাই। তখনই তাদের চলে যেতে বলেন তিনি। অভিযোগ, কয়েক দিন ধরে মেয়ে-জামাই অমিতাকে গালিগালাজ ও অপমান করছিল। ওই দিন মারধর করে বঁটি দিয়ে আঘাতও করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার পর থেকেই পলাতক সুনীতা ও তাজেশ।