• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বালি চাপা পড়ে মৃত

কারখানার ভিতরে গরম বালি সরাচ্ছিলেন এক ঠিকা শ্রমিক। আচমকাই বালির উপরে রাখা লোহার যন্ত্রাংশ হুড়মুড়িয়ে তাঁর উপরে এসে পড়ায় মৃত্যু হল ওই শ্রমিকের। বুধবার ঘটনাটি ঘটেছে বেলঘরিয়ায়, রেলের ওয়াগন প্রস্তুতকারী একটি সংস্থার কারখানায়।

পুলিশ জানায়, ওই শ্রমিকের নাম মুনিয়া সাউ (২৩)। বেলঘরিয়ার বাসিন্দা মুনিয়া দু’বছর যাবৎ ওই কারখানায় কাজ করছিলেন। এ দিন স্টিল ফাউন্ড্রিতে গরম বালি সরাচ্ছিলেন তিনি। আচমকাই বালির স্তূপের উপরে রাখা লোহার যন্ত্রাংশ তাঁর উপরে এসে পড়ে। মুহূর্তে গরম বালিতে মুনিয়ার শরীর ঢুকে যায়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর।

এর পরেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন অন্য শ্রমিকেরা। অভিযোগ তোলেন, তাঁদের নিরাপত্তার ন্যূনতম ব্যবস্থা নেই। সে সময়ে কারখানার গেটে তালা লাগিয়ে দেন কর্তৃপক্ষ। কিন্তু স্টিল ফাউন্ড্রি-সহ অন্য বিভাগের শ্রমিকেরা তালা ভেঙে ঢুকে বিক্ষোভ শুরু করেন। উপযুক্ত ক্ষতিপূরণের দাবিতে সন্ধ্যা পর্যন্ত মুনিয়ার দেহ আটকে রাখেন তাঁরা। খবর পেয়ে বেলঘরিয়া থানার পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামলায়।

এক ঠিকা শ্রমিক সুনীল সিংহ বলেন, ‘‘বিপজ্জনক ভাবে রোজ কাজ করতে হয়। বহু বার বলা হলেও কর্তৃপক্ষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেননি। মাঝেমধ্যেই দুর্ঘটনা ঘটছে।’’ তবে ঘটনার পর থেকেই কারখানার কর্তারা পলাতক।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন