ভরা রাস্তার উপর গুলি করে খুন! শনিবার রাত ন’টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে কড়েয়া থানা এলাকার লোহাপুল অটো স্ট্যান্ডের সামনে। খুব কাছ থেকে আততায়ী ওই যুবককে গুলি করে। গুরুতর আহত অবস্থায় চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে গেলে সেখানে ওই যুবককে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, মৃত যুবকের নাম শেখ মইনাজ। মধ্য তিরিশের ওই যুবক পার্ক সার্কাস স্টেশনের কাছে রেললাইনের ধারে ঝুপড়িতে থাকেন। ওই এলাকার বাসিন্দারা পুলি‌শকে জানিয়েছেন, মইনাজের সঙ্গে শেখ সাকির নামে এক যুবকের গণ্ডগোল হয় এ দিন সন্ধ্যায়। এক মহিলাকে উত্ত্যক্ত করাকে কেন্দ্র করে দু’জনের বচসা হাতাহাতিতে গড়ায়। সাকির ওই এলাকার দুষ্কৃতী হিসাবে পরিচিত। ওই বস্তির কয়েক জন বাসিন্দা পুলিশকে জানিয়েছেন যে মইনাজ গণ্ডগোলের সময় সাকিরকে ক্ষুর মেরে পালায়। সে পালিয়ে লোহাপুল বাজার এলাকায় অটো স্ট্যান্ডের পাশে বসে ছিল।

সেখানে আচমকাই হাজির হয় সাকিরের ভাইপো নৌশাদ। সে খুব কাছ থেকে গুলি করে মইনাজকে। ঘটনাস্থলে তখন যথেষ্ট লোক জন ছিল। কিন্তু ঘটনার আকস্মিকতায় কেউই বাধা দিতে পারেননি। পেশায় মইনাজ রঙ মিস্ত্রি।

আরও পড়ুন: আয়কর নজরে আরও ৩৫০ ক্লাব, যাবেন না, বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

তবে তদন্তে নেমে পুলিশ আরও কয়েকটি বিষয়ের হদিশ পেয়েছে। পুলিশ জানতে পেরেছে ঘটনা স্থলের কাছেই একটি বহুতলের নির্মাণ চলছে। সেখানে মইনাজ কাজ করত। ওই একই বহুতলের নির্মাণের কাজে যুক্ত ছিল নৌসাদ এবং তার বন্ধু মিরাজ। কয়েক দিন আগে মইনাজের সঙ্গে নৌশাদের টাকা পয়সা নিয়ে ঝামেলা হয় বলে জানতে পেরেছে পুলিশ। তার জেরে এ দিনের ঘটনা কী না তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: চাকরি দেওয়ার নাম করে প্রতারণা, সৌমিত্র খাঁ-র বিরুদ্ধে মামলা দায়ের