ফের ডেঙ্গি ধরা পড়ল ভাঙড়ের একটি গ্রামে। ভাঙড় ১ ব্লকের শাঁকশহর পঞ্চায়েতের বাউশহরের মাঠপাড়ায় গত কয়েকদিন ধরেই জ্বরে আক্রান্ত বহু মানুষ। এঁদের মধ্যে ৩৫ জনের রক্ত পরীক্ষায় এনএসওয়ান ডেঙ্গি পজিটিভ ধরা পড়েছে। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে রবিবার বিকেলে ওই এলাকায় আসেন প্রশাসনিক কর্তারা। ছিলেন ডিরেক্টর অফ হেলথ সার্ভিস অজয় চক্রবর্তী, জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক সোমনাথ মুখোপাধ্যায়, অতিরিক্ত জেলা শাসক সাগর চক্রবর্তী, বিডিও সৌগত পাত্র, ভাঙড় ১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শাহজাহান মোল্লা। এ দিন তাঁরা এলাকায় একটি সচেতনতামূলক আলোচনা সভা করেন। বিভিন্ন বাড়িতে গিয়ে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেন এবং রোগীদের সঙ্গে কথাও বলেন। কয়েকদিন আগে ওই ব্লকেরই মরিচা গ্রামে একসঙ্গে ১৭ জনের রক্ত পরীক্ষায় ডেঙ্গি ধরা পড়েছিল। 

অতিরিক্ত জেলাশাসক সাগর চক্রবর্তী বলেন, ‘‘গ্রামে বেশ কয়েকজনের জ্বর হয়েছে। কিছু মানুষের ডেঙ্গি ধরা পড়েছে। তবে পরিস্থিতি উদ্বেগজনক নয়। আমরা পরিস্থিতির উপর নজর রাখছি। এখনও পর্যন্ত ব্লক এলাকায় ডেঙ্গিতে মৃত্যুর খবর নেই। তবুও সবাইকে সচেতন করা হচ্ছে সাবধানে থাকার জন্য।’’ জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক সোমনাথ মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘‘গতবারের তুলনায় এবার ব্লক এলাকায় ডেঙ্গির প্রকোপ অনেকটাই কম। আমাদের স্বাস্থ্যকর্মীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে মানুষের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার পাশাপাশি সব রকম ব্যবস্থা নিয়েছেন। তবে মানুষকেও সচেতন হতে হবে। অনেকেই রাতে মশারি না টাঙিয়ে ঘুমাচ্ছেন। খালি গায়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। মশার হাত থেকে বাঁচতে রাতে মশারি টাঙানো, ফুল হাতা শার্ট পরা প্রয়োজন।’’