• নিজস্ব সংবাদদাতা 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

তৃণমূল বিজেপি সংঘর্ষে গ্রেফতার বিজেপি-র ৬ জন 

Clash
পাল্টা: উপরে, ক্ষতিগ্রস্ত বিজেপির অফিস। ছবি: সামসুল হুদা

Advertisement

তৃণমূল ও বিজেপির সংর্ঘষের ঘটনায় বুধবারও উত্তেজনা ছিল ক্যানিংয়ে। পুলিশ জানিয়েছে, তৃণমূলের পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ৬ জন বিজেপি কর্মী গ্রেফতার হয়েছেন। তদন্ত চলছে।
ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার সকালে ক্যানিংয়ে তৃণমূলের পক্ষ থেকে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়। উপস্থিত ছিলেন ক্যানিং পশ্চিমের বিধায়ক শ্যামল মণ্ডল, ক্যানিং পূর্বের বিধায়ক সওকত মোল্লা-সহ অনেকে। সভা থেকে তৃণমূল নেতারা বিজেপিকে হুঁশিয়ার করে বলেন, ‘‘আমরা কোনও গণ্ডগোল করতে চাই না। কিন্তু যদি কেউ গণ্ডগোল করে, তা হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’’ 
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গোসাবায় বিজেপি কর্মী সঞ্জয় সিংহের উপরে তৃণমূলের হামলার প্রতিবাদে বিজেপি মঙ্গলবার রাতে ক্যানিং বাসস্ট্যান্ডে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখায়। এর মধ্যে কিছু কর্মী ক্যানিংয়ে দু’টি দোকানে ভাঙচুর চালায় এবং তৃণমূলের একটি দলীয় কার্যালয়ে হামলা চালায় বলে অভিযোগ। 
প্রতিবাদ করলে মাতলা ২ তৃণমূলের উপপ্রধান সনাতন হালদারকে মারধর করা হয় বলেও অভিযোগ। তাঁর মাথা ফেটে যায়। তাঁকে বাঁচাতে গেলে তৃণমূলের যুবনেতা সৌরভ মণ্ডলকেও মারধর করা হয়। তাঁর হাত ভাঙে। 
অভিযোগ, এরপরে বিজেপির লোকজন ক্যানিং ১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি তথা ব্লক যুব সভাপতি পরেশরাম দাসের উপরে চড়াও হয়। তাঁর নিরাপত্তারক্ষী ও অন্য তৃণমূল কর্মীরা রুখে দাঁড়ান। তখন পিছু হঠে বিজেপি কর্মীরা। 

নীচে, তৃণমূলের বিক্ষোভ। 
অভিযোগ, এই ঘটনার পরে তৃণমূলের কর্মীরা ক্যানিং স্টেশন চত্বরে বিজেপির একটি দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দেয়। তৃণমূলের পাল্টা মারে জখম হন দুই বিজেপি কর্মী। আহত দু’পক্ষের কর্মীদের ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 
পরেশবাবু বলেন, ‘‘কোনও প্ররোচনা ছাড়াই বিজেপি লোহার রড়, লাঠি নিয়ে আমাদের দলীয় কার্যালয়ে হামলা চালায়। আমাকেও আক্রমণ করে। আমাকে বাঁচাতে গিয়ে দুই কর্মী জখম হয়েছেন। বিজেপি শান্ত ক্যানিংকে অশান্ত করতে চাইছে।’’ অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিজেপি জেলা সভাপতি  ত্রিদিব মণ্ডল বলেন, ‘‘ওরা মিথ্যা অভিযোগ করছে। আমাদের কর্মীদের মারধর করে এবং আমাদের কার্যালয়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে তৃণমূল।’’
বিজেপি-র ক্ষতিগ্রস্ত পার্টি অফিস দেখতে এ দিন এলাকায় এসেছিলেন বিজেপি নেত্রী দেবশ্রী রায়চৌধুরী, ত্রিদ্রিব মণ্ডল সহ অনেক। 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন