• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মদ খাওয়া নিয়ে বচসা

গলা টিপে বন্ধুকে খুনের অভিযোগ   

Jhantu and Paik
ধৃত ঝন্টু দাস। (ইনসেটে) নিহত ভজন পাইক।

মদ খাওয়া নিয়ে বচসার জেরে বন্ধুকে মারধর করে গলা টিপে খুনের অভিযোগ উঠল এক যুবকের বিরুদ্ধে।

শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে হাবড়া থানার বাণীপুর ইতনা নতুন কলোনি এলাকায়। পুলিশ রবিবার সকালে ভজন পাইক (২৬) নামে নিহত যুবকের দেহ উদ্ধার করেছে।   তাঁর বাড়ি বাণীপুর এলাকায়। নিহতের মা চায়না রবিবার থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করেছেন। রবিবার দুপুরে ভজনের বন্ধু ঝন্টু দাসকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তদন্তকারী অফিসারদের দাবি, ধৃত যুবক খুনের কথা স্বীকার করেছে। ভজনের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য বারাসত জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ভজন ভিনরাজ্যে চাল বিক্রির কাজ করেন। দিন কয়েক আগে বাড়ি ফিরেছিলেন। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার বিকেলে ফোন পেয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান ভজন। চায়না জানান, রাত ৮টা নাগাদ ছেলে ফোন করে জানায়, বারাসতে আছে। কিছুক্ষণের মধ্যেই বাড়ি ফিরবে। কিন্তু ছেলে রাতে ফেরেনি। ফোনেও পাওয়া যায়নি।  

রবিবার সকালে এক প্রতিবেশী ভজনের পরিবারের লোকজনকে জানান, কাছেই শ্মশানে ভজনের দেহ পড়ে রয়েছে। নাক দিয়ে রক্ত বেরোচ্ছে। পুলিশ গিয়ে দেহ উদ্ধার করে। তদন্তে নেমে পুলিশ কর্তারা জানিয়েছেন, শনিবার রাতে অশোকনগর স্টেশন এলাকায় ভজনের সঙ্গে দেখা হয় রাকেশ ও ঝন্টুর। তারা দু’বোতল দেশি মদ কিনে শ্মশানে গিয়ে আসর বসায়। কিছুক্ষণ পরে রাকেশ চলে যান। বোতলের শেষ মদটুকু ভজন খেয়ে নেন বলে অভিযোগ। তা নিয়ে ঝন্টুর সঙ্গে বচসা শুরু হয়। ভজন চড় মারেন ঝন্টুকে। অভিযোগ, সে সময় ঝন্টু চড়াও হয় ভজনের উপরে। কিল, ঘুষি মারতে থাকে। ভজন মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। গলা টিপে ধরে ঝন্টু। শ্বাসরোধ করে খুন করে পালায়। ছবি: সুজিত দুয়ারি

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন