• নিজস্ব সংবাদদাতা 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পরিবারের পাশে নেতারা

rabindranath mondal
ফাইল চিত্র

হেমনগরে মৃত বিজেপি কর্মী রবীন্দ্রনাথ মণ্ডলের পরিবারের সঙ্গে বুধবার দেখা করল রাজ্য বিজেপির এক প্রতিনিধি দল। ছিলেন অর্জুন সিংহ, সৌমিত্র খাঁ, সুভাষ সরকার। রবীন্দ্রনাথের পরিবারকে পাঁচ লক্ষ টাকা দেওয়া হবে বলে আশ্বাস দেন তাঁরা। এ দিন দুপুরে ধানখেতের আলের উপর দিয়ে পায়ে হেঁটে রবীন্দ্রনাথ মণ্ডলের বাড়ি পৌঁছন অর্জুন সিংহরা। নেতাদের কাছে পেয়ে মৃতের ছেলে সৌরভ মণ্ডল বলেন, “পরিবারের একমাত্র রোজগেরে সদস্য ছিলেন বাবা। পরিবারটা যাতে ভেসে না যায়, খুনিরা কঠোর শাস্তি পায়, একটু দেখবেন।” বিজেপি নেতারা পাশে থাকার আশ্বাস দেন। এ দিন একশোরও বেশি বাইকে করে কর্মী-সমর্থকেরা আসেন। সৌমিত্র বলেন, “মমতা বোমারু মন্ত্রী তৈরি করছেন জেলায় জেলায়। এই জেলায় জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক হল বোমারু মন্ত্রী। আমাদের দরিদ্র কৃষক কর্মী রবীন্দ্রনাথ মণ্ডলকেও মেরে ফেলা হল।” অর্জুন বলেন, “এ রাজ্যে গণতন্ত্র নেই। আইন-শৃঙ্খলা বলে কিছু নেই। পুলিশ দলদাস হয়ে কাজ করছে।” এ দিন স্থানীয় মানুষের একাংশকে দেখা যায়, নেতাদের কাছে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ জানাচ্ছেন। উত্তর ২৪ পরগনায় তৃণমূলের জেলা সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, “জেলার মানুষ জানেন, আমি কেমন। আমার বিরুদ্ধে খুন-ডাকাতির মামলা নেই। ওঁদের বিরুদ্ধে আছে। বিজেপি এখন ক্রমশ ক্ষয়ে যাচ্ছে। বিধানসভা ভোটের পরে ওদের খুঁজে পাওয়া যাবে না। পুলিশকে বলেছি ওই খুনের ঘটনায় জড়িত সকলকে গ্রেফতার করতে।” বৃহস্পতিবার রাজ্য সরকার ওই পরিবারের হাতে ২ লক্ষ টাকার চেক পৌঁছে দেবে বলে জানান তিনি।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন