বাসন্তী হাইওয়ে সম্প্রসারণের জন্য ভাঙড়ের ঘটকপুকুরে বেশ কিছু দোকান ভাঙতে হবে। সেই আতঙ্কে ‘ঘটকপুকুর জীবন-জীবিকা বাঁচাও কমিটি’ প্রশাসনের কাছে স্মারকলিপি জমা দেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে ভাঙড় ১ ব্লক অফিসের সামনে কয়েকশো ব্যবসায়ী, অটো, টোটো, রিকশাচালকে বিক্ষোভও দেখান। বিডিও ও পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতিকে স্মারকলিপি দেন তাঁরা।

ব্লক প্রশাসন সূত্রের খবর, অনেক দিন আগেই বাসন্তী হাইওয়ে সম্প্রসারণের কাজ শুরু হয়েছে। ঘটকপুকুর বাজার-সহ ভাঙড় ১ ব্লকের চণ্ডীপুর থেকে বৈরামপুর পর্যন্ত রাস্তা সম্প্রসারণের জন্য ব্লক প্রশাসনের কাছে নির্দেশ আসে। সেখানে ব্লক এলাকার প্রায় ১৭৪ জন রায়তি সম্পত্তির মালিকের হদিস চাওয়া হয়েছে। সেই মতো ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে বুধবার এলাকার জনপ্রতিনিধি, প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের আধিকারিকদের কাছে জানানো হয়, বৃহস্পতিবার বিকেলে এ সংক্রান্ত একটি বৈঠক ডাকা হয়েছে। কিন্তু ওই বৈঠকের আগেই ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে বিক্ষোভ দেখানো হয়।

বিক্ষোভকারীদের পক্ষে আয়নাল আলি মোল্লা বলেন, ‘‘আমরা উন্নয়নের বিপক্ষে নই। কিন্তু রাস্তা চওড়া করতে গিয়ে অনেকের দোকান ভাঙতে হতে পারে। অনেক গরিব মানুষ বিপদে পড়তে পারেন।’’ ভাঙড় ১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শাজাহান মোল্লা বলেন, ‘‘ওঁরা আমাদের আগাম কিছু না জানিয়ে স্মারকলিপি জমা দিয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে আমরা প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরে কথা বলব।’’

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।