• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

টাকা নিয়েছেন বিধায়ক, নালিশ নেত্রীর

pgn
প্রতীকী ছবি

বিধায়কের বিরুদ্ধে চাকরি দেওয়ার নাম করে টাকা নেওয়ার অভিযোগ করলেন ক্যানিং ১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি অণিমা মিস্ত্রি। তাঁর কাছ থেকে বিধায়ক ৯ লক্ষ টাকা নিয়েছেন বলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন অণিমা। শুধু বিধায়ক শ্যামল মণ্ডল নন, তাঁকে পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি করানোর জন্য দলীয় কিছু নেতা ৫ লক্ষ টাকা নিয়েছেন বলে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ করেছেন তিনি।

শ্যামল বলেন, ‘‘অণিমা মিথ্যা অভিযোগ করছেন। ওঁর স্বামী কৃষিজীবী। তিনি এত টাকা তৃণমূল নেতৃত্বকে দেওয়ার জন্য পেলেন কোথা থেকে?’’  অণিমা জানান, তাঁর গয়না বিক্রি করে ও ধার করে টাকা জোগাড় করেছিলেন। তবে এই ঘটনায় ফের তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এল। কিছু দিন আগেই অণিমা ক্যানিং ১ বিডিও নীলাদ্রিশেখর দে-র নামে দাঁড়িয়া পঞ্চায়েত এলাকায় শৌচাগার তৈরি নিয়ে এক কোটি টাকা দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছিলেন। পরে অণিমার নামে দলের পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষেরা দুর্নীতির অভিযোগ দায়ের করেন।

অণিমা বলেন, “আমাকে চাকরি দেওয়ার নাম করে বিধায়ক ৯ লক্ষ টাকা নিয়েছেন।’’ যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন শ্যামল। তিনি বলেন, “সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগ। নিজেই বিভিন্ন ভাবে দুর্নীতিগ্রস্ত উনি। আমপানে দুর্গত মানুষের জন্য আসা ১৫৫ কুইন্ট্যাল চাল, ৩০০ ত্রিপল বিক্রি করেছেন। নিজের দোষ ঢাকতে অন্যের বিরুদ্ধে বদনাম করছেন।’’ বুলবুলের পরেও ঠিকাদারের থেকে কাটমানি নিয়েছিলেন অণিমা, অভিযোগ শ্যামলের। এ সব অভিযোগ অবশ্য মানেননি অণিমা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন