• সমীরণ দাস
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিরোধী কাউন্সিলরদের স্বাগত জানালেন বিদায়ী পুরপ্রধান

Sujit
সাংবাদিক সম্মেলনে সুজিত সরখেল (মাঝে)। নিজস্ব চিত্র

প্রশাসনিক বোর্ডে বিরোধী কাউন্সিলরদের স্বাগত জানালেন জয়নগর-মজিলপুর পুরসভার বিদায়ী পুরপ্রধান সুজিত সরখেল। পাশাপাশি প্রশাসনিক কাজে স্বচ্ছতা আনতে প্রতিটি পুরসভার প্রশাসনিক বোর্ডে বিরোধী কাউন্সিলরদের অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানালেন তিনি। রবিবার জয়নগর পুরসভার কংগ্রেস পরিচালিত বর্তমান পুর বোর্ডের মেয়াদ শেষ হল। করোনা-পরিস্থিতিতে পুরভোট না হওয়ায় সোমবার থেকে পুরসভা পরিচালনার জন্য বর্তমান পুরপ্রধান, উপ পুরপ্রধানকে নিয়ে একটি প্রশাসনিক বোর্ড গঠন করেছে রাজ্য সরকার। সেই বোর্ডে রাখা হয়েছে দু’জন তৃণমূল কাউন্সিলরকেও।

জেলা তথা রাজ্যের অনেক পুরসভারই মেয়াদ শেষ। ফলে অধিকাংশ জায়গাতেই অন্তর্বর্তীকালীন প্রশাসনিক বোর্ড তৈরি হয়েছে। তৃণমূলের দখলে থাকা পুরসভাগুলির ক্ষেত্রে প্রশাসনিক বোর্ডে শুধুমাত্র পুরপ্রধান এবং উপপ্রধানই আছেন। কিন্তু বাম পরিচালিত শিলিগুড়ি পুরসভা এবং কংগ্রেস পরিচালিত জয়নগর পুরসভাতেই প্রশাসনিক বোর্ডে পুরপ্রধান, উপপ্রধানের সঙ্গে তৃণমূল কাউন্সিলরদেরও জুড়ে দেওয়া হয়। শিলিগুড়িতে পুরপ্রধান অশোক ভট্টাচার্য এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করায় প্রশাসনিক বোর্ড থেকে তৃণমূল কাউন্সিলরদের সরিয়ে নেয় সরকার। তবে জয়নগরে কার্যত অশোক ভট্টাচার্যের উল্টো পথেই হাঁটলেন সুজিত সরখেল। রবিবার জয়নগরের কংগ্রেস কার্যালয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলনে বিদায়ী পুরপ্রধান বলেন, ‘‘পুরসভা পরিচালনার জন্য রাজ্য সরকার চার সদস্যের প্রশাসনিক বোর্ড গড়ে দিয়েছে। সেই দলে দু’জন তৃণমূল কাউন্সিলরও আছেন। আমি তাঁদের স্বাগত জানাচ্ছি। রাজনীতি ভুলে সকলে মিলেই এই কঠিন পরিস্থিতিতে মানুষের পাশে থাকতে চাই।’’

সুজিত আরও বলেন, ‘‘বেছে বেছে বিরোধী পুরসভাগুলির প্রশাসনিক বোর্ডে তৃণমূল কাউন্সিলরদের রাখা হয়েছে। সে দিক থেকে দেখলে এই সিদ্ধান্ত রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। সরকারের কাছে আবেদন করব, রাজনীতির উর্ধ্বে উঠে প্রশাসনিক কাজে স্বচ্ছতা আনতে প্রতিটি পুরসভার প্রশাসনিক বোর্ডেই বিরোধী কাউন্সিলরদের রাখা হোক। পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমকে চিঠি লিখে এই আবেদন জানিয়েছি।’’

প্রশাসনিক বোর্ডে রয়েছেন জয়নগর পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান তথা বর্তমান কাউন্সিলার তৃণমূল নেত্রী ফরিদা বেগম শেখ। তিনি বলেন, ‘‘চার সদস্যের প্রশাসনিক বোর্ড তৈরি হয়েছে। আপাতত এই বোর্ডই পুরসভা পরিচালনা করবে। বোর্ডের সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করেই পরবর্তী রূপরেখা তৈরি হবে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন