স্কুলের ফুটবল ম্যাচে জয়ী দলের সদস্যেরা ‘জয় শ্রীরাম’ বলায় উত্তেজনা ছড়াল এলাকায়। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার ঘটনাটি ঘটে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুর থানার বাখরাহাট উচ্চ বিদ্যালয়ে। এ দিন সেখানে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রদের মধ্যে ফুটবল খেলা হয়েছিল। তাতে একাদশ শ্রেণির ছাত্রেরা জয়ী হয়। তার পরেই তারা ‘জয় শ্রীরাম’ বলতে থাকে বলে অভিযোগ। এ নিয়ে দ্বাদশ শ্রেণির কয়েক জন ছাত্রের সঙ্গে তাদের বচসাও হয়। দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রেরা একাদশ শ্রেণির এক ছাত্রকে মারধর করে বলে অভিযোগ। সোমবার শিক্ষকেরা দু’পক্ষের ঝগড়া মিটিয়ে দেন। কিন্তু তার পরেও বুধবার ফের দু’পক্ষের মধ্যে ‘জয় শ্রীরাম’ বলা নিয়ে বচসা বাধে। এ বার ওই বচসা শুধু স্কুলের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকেনি। তা ছড়িয়ে পড়ে বাইরেও। অভিভাবকেরা গণ্ডগোলের খবর পেয়ে স্কুলে চলে আসেন। বাহিনী নিয়ে পৌঁছে যায় বিষ্ণুপুর থানার পুলিশও।

পুলিশ এসে একে একে ছাত্রদের বার করে দেওয়ার চেষ্টা করে। অভিযোগ, পুলিশের সামনেই কয়েক জন অভিভাবক ছাত্রদের মারধর করেন। এক তদন্তকারীর কথায়, ‘‘স্কুলের বচসা এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। এক দিকে বিবিরহাট ও অন্য দিকে বাখরাহাটে জমায়েত শুরু হয়। পুলিশ স্কুলের সামনে থেকে জমায়েত ছত্রভঙ্গ করতে লাঠি চালায়।’’ 

তার পরেই অভিভাবকেরা পিছু হটেন বলে পুলিশের দাবি। পুলিশবাহিনী স্কুল চত্বর ঘিরে ফেলে। কমব্যাট ফোর্স এসে টহলদারি শুরু করে। বিকেল চারটে নাগাদ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে বলে জানিয়েছেন ডায়মন্ড হারবার পুলিশের এক কর্তা। এক পুলিশকর্তার কথায়, ‘‘ওই এলাকায় পুলিশ পিকেট রয়েছে, টহলদারিও চলছে। স্কুলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা হচ্ছে।’’