• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আগরপাড়ায় কালীপুজোর মণ্ডপে তাণ্ডব

police personnel
অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। প্রতীকী ছবি।

পুজো মণ্ডপে খেলা চলার সময়ে তাণ্ডব চালানোর অভিযোগ উঠল তিন যুবকের বিরুদ্ধে। এর প্রতিবাদ করায় খেলায় অংশগ্রহণকারী মহিলাদের যৌন হেনস্থার চেষ্টা এবং পুরুষ সদস্যদের মারধর করারও অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে আগরপাড়ায়। পুলিশ জানায়, অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।

স্থানীয় সূত্রের খবর, পানিহাটি পুরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের আগরপাড়া ক্ষুদিরাম বোস রোডে কালীপুজো হয়েছে। ওই রাতে সওয়া ৯টা নাগাদ সেখানেই মহিলাদের মধ্যে ‘পাসিং দ্য বল’ খেলা চলছিল। অভিযোগ, আচমকাই পাশের পাড়ার তিন যুবক মণ্ডপে এসে গান বাজানোর বক্স ও মোবাইল ফোনটি ফেলে দেয়। জয়শ্রী পাল নামে এক মহিলা প্রতিবাদ করতে এগিয়ে গেলে ওই তিন যুবক তাঁকে ধাক্কা মারে বলেও অভিযোগ। অন্য মহিলারা প্রতিবাদ করতে এগিয়ে গেলে তাঁদের সঙ্গেও যুবকেরা অশালীন আচরণ করা হয়। আরও অভিযোগ, তাঁর দুই ছেলেকে গুলি করা হবে বলে হুমকি দেওয়া হয় মায়া দাস নামে এক প্রৌঢ়াকে। এর পরেই চেয়ার-টেবিল ভাঙতে শুরু করে যুবকেরা।  

ওই পুজো কমিটির সভাপতি সুমন পাল বলেন, ‘‘প্রথমে মহিলারা বাধা দেন। কিন্তু ওই যুবকেরা তাঁদের সঙ্গে অভব্য আচরণ করেছে দেখে আমরা এগিয়ে যাই। তখন ওই যুবকেরা রিভলভার বার করে আমাদের মারধর করে।’’ অভিযোগ, সুমনবাবুর পাশাপাশি সুদীপ্ত দাস নামে আর এক যুবককেও রিভলভারের বাঁট দিয়ে আঘাত করে অভিযুক্ত তিন যুবক। সুমনবাবু জানান, বেশ কিছুক্ষণ তাণ্ডব চালানোর পরে চম্পট দেয় ওই তিন জন। ঘটনায় ছ’জন মহিলা-সহ পুজো কমিটির কয়েক জন যুবকও আহত হন। এ বিষয়ে খড়দহ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন সুমনবাবুরা। তিনি বলেন, ‘‘অভিযুক্তেরা গ্রেফতার না হলে আমরা পুলিশ কমিশনারের কাছে যাব। প্রয়োজনে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ জানাব।’’ ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের এক কর্তা বলেন, ‘‘অভিযোগ পেয়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তদের খোঁজ চলছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন