• নিজস্ব সংবাদদাতা 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মহিলার মৃত্যুতে গণধোলাই

mob lynching
—প্রতীকী চিত্র।

এক মহিলার মৃত্যুতে উত্তেজিত জনতা গণধোলাই দিল আর এক মহিলা পম্পা মণ্ডলকে। তাঁকে যোগেশগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে হেমনগর উপকূলবর্তী থানার যোগেশগঞ্জে। মৃতের নাম সবিতা মণ্ডল (৫২)। তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। পুলিশ তার ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে। 

পুলিশ ও স্থানীয় জানা গিয়েছে, সুন্দরবন-লাগোয়া যোগেশগঞ্জের বাজারের পাশে বাড়ি অশ্বিনী মণ্ডল তাঁর স্ত্রী সবিতার। তাঁদের দুই ছেলের মধ্যে ছোট ছেলে বছর দু’য়েক আগে মারা যান। ওই ঘটনার পরে মানসিক ভাবে ভেঙে পড়েন সবিতা। 

পুলিশ জানায়, যোগেশগঞ্জ বাজারের চায়ের দোকানি পম্পা সবিতার মতো বেশ কয়েক জনের কাছ থেকে চড়া সুদ দেওয়ার নাম করে লক্ষাধিক টাকা ধার নেয়। কিন্তু কাউকেই টাকা ফেরত দিচ্ছিল না। 

এ দিকে, টাকা ফেরত না পেয়ে সবিতা আরও ভেঙে পড়েন বলে দাবি পরিবারের। বুধবার রাতে পম্পার কাছে ধার নেওয়া ১৫ হাজার টাকা চেয়ে ফেরত না পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন সবিতা। বাড়ি ফিরে কিছু না খেয়ে শুয়ে পড়েন। এ দিন সকালে সবিতাকে শাড়ির ফাঁসে ঝুলতে দেখা যায়। 

খবর রটে যেতেই ক্ষুব্ধ জনতা ক্ষোভে ফেটে পড়ে। তারা চা দোকান থেকে পম্পাকে টেনে বের করে রাস্তায় ফেলে মারধর শুরু করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পম্পাকে উদ্ধার করে। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন