• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বাঘের আক্রমণ, নিখোঁজ

1
প্রতীকী চিত্র

লকডাউনে কাজ হারিয়ে কাঁকড়া ধরে সংসার চালাচ্ছিলেন এক ব্যক্তি। কিন্তু পড়লেন বাঘের কবলে। 

শনিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে সুন্দরবনের পিরখালির জঙ্গলে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মনোহর মণ্ডল নামে বছর পঁয়ষট্টির ওই মৎস্যজীবীকে ঘাড়ে কামড় বসিয়ে জঙ্গলে তুলে নিয়ে যায় বাঘটি। সুন্দরবন কোস্টাল থানার লাহিড়িপুর পঞ্চায়েতের জেমসপুরের বাসিন্দা মনোহর। পরিবার সূত্রের খবর, এলাকায় মূলত দিনমজুরের কাজ করতেন মনোহর। লকডাউনের জেরে সেই কাজ এখন আর সে ভাবে হচ্ছে না। সংসার চালাতে মাঝে মধ্যেই সুন্দরবনের নদী-খাঁড়িতে মাছ, কাঁকড়া ধরতে যান মনোহর। এ দিন সকালেও তিন সঙ্গী গৌর মণ্ডল, নমিতা মণ্ডল ও সবিতা মণ্ডলের সঙ্গে পিরখালির জঙ্গলে কাঁকড়া ধরতে গিয়েছিলেন মনোহর। মনোহরের সঙ্গীরা জানান, সরু খাঁড়ি ধরে জঙ্গলের মধ্যে অনেকটা এগিয়ে যান সকলে। নৌকো থেকে নেমে কাঁকড়া ধরার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এমন সময়ে পিছন থেকে আচমকা একটা বাঘ এসে নৌকোর উপরে বসে থাকা মনোহরের উপরে ঝাঁপিয়ে পড়ে। ঝাঁকুনিতে দুলে ওঠে নৌকো।

বাকিরা সকলেই জলে পড়ে যান। মনোহরকে নিয়ে কাদায় পড়ে বাঘ। জল থেকে উঠে নমিতা ও গৌর কাঁকড়া ধরার শিক দিয়ে বাঘকে মেরে সঙ্গীকে ছাড়িয়ে আনার চেষ্টা করেন। মনোহরকে নিয়ে মুহূর্তেই জঙ্গলের মধ্যে গা ঢাকা দেয় বাঘ। গ্রাম থেকে কয়েকজন নৌকো করে ঘটনাস্থলে গিয়ে বেশ কিছুক্ষণ তল্লাশি করেন। কিন্তু মনোহরের খোঁজ মেলেনি। সুন্দরবন ব্যাঘ্র প্রকল্পের ফিল্ড ডিরেক্টর সুধীরচন্দ্র দাস বলেন, “কাঁকড়া ধরতে গিয়ে এক ব্যক্তি বাঘের হামলার কবলে পড়েছেন বলে শুনেছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন