• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বনগাঁ থেকে বাবুঘাট এ বার এক বাসেই

BUS
প্রতীকী ছবি।

লকডাউন শিথিল হওয়ায় অফিস-কাছারি খুলেছে। এ দিকে, লোকাল ট্রেন চালু হয়নি। বনগাঁ থেকে কলকাতার সঙ্গে যোগাযোগের মূল মাধ্যম হল ট্রেন। এই পরিস্থিতিতে বনগাঁ থেকে কলকাতা পর্যন্ত চালু হল বাস রুট। সোমবার থেকে শুরু হয়েছে পরিষেবা। বনগাঁ-দক্ষিণেশ্বর (ডিএন ৪৪) রুটের বাসগুলিই আপাতত বাবুঘাট পর্যন্ত যাবে। আটটি বাস আপাতত রুট পারমিট পেয়েছে বলে জানিয়েছেন উত্তর ২৪ পরগনা জেলা আঞ্চলিক পরিবহণ কর্তৃপক্ষের সদস্য গোপাল শেঠ। যাত্রীদের দাবি আরও বাসের। রুট কর্তৃপক্ষের তরফে নারায়ণ ঘোষ বলেন, “এখন লোকাল ট্রেন বন্ধ। বনগাঁর বহু মানুষের কর্মস্থল কলকাতায়। তাঁদের কথা ভেবে বনগাঁ- দক্ষিণেশ্বর রুটের বাসগুলি বাবুঘাট পর্যন্ত চালানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে।” সোমবার সকালে শহরের নিউমার্কেট এলাকা প্রথম বাসটি বাবুঘাটের দিকে রওনা দেয়। বাসগুলি বনগাঁ থেকে মধ্যমগ্রাম থেকে বিটি রোড ধরে সোদপুর-ডানলপ-শ্যামবাজার-সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ-ধর্মতলা হয়ে বাবুঘাটে পৌঁছবে। ভোর সাড়ে পাঁচটা থেকে সকাল ১০টার মধ্যে আটটি বাস ছাড়বে। বাবুঘাট থেকে বনগাঁ ফেরার শেষ বাস বিকেল সাড়ে ৫টায়। এক পিঠের সর্বোচ্চ ভাড়া ৬৫ টাকা। সময় লাগছে সাড়ে প্রায় চার ঘণ্টা। পরিষেবার নাম দেওয়া হয়েছে, ‘কোভিড ১৯ স্পেশাল’। বাস চালক এবং শ্রমিকেরা অর্ধেক বেতন নিয়ে পরিষেবা দিচ্ছেন। লকডাউনে তাঁদের রুজি-রোজগার বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। ফের বাস চালু হওয়ায় খুশি তাঁরা। বাসের সব আসনই বনগাঁ থেকে ভর্তি হয়ে যাচ্ছে। বনগাঁর কার্তিক বিশ্বাস বলেন, “সম্প্রতি অফিস খুললেও যেতে পারছিলাম না। গাড়ি ভাড়া করে যাওয়ার সামর্থ্য নেই। বাস চালু হওয়ায় চাকরিটা অন্তত বাঁচাতে পারব।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন