প্রবল বর্ষণে পাঁচিল ধসে তিন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে সোনারপুরের রামকৃষ্ণ পল্লিতে। বুধবারের ওই ঘটনায় আহত হয়েছেন তিন জন। পুলিশ জানায়, মৃতদের নাম মথুর মণ্ডল, মিঠুন পণ্ডিত ও দেবু পণ্ডিত।

লাগাতার বৃষ্টিতে ওখানে বিদ্যুৎ সাবস্টেশনের পাঁচিল ধসে পড়ে। সেখানে ছিলেন এক ঠিকাদার এবং কয়েক জন শ্রমিক। ভাঙা পাঁচিল পড়ে তাঁদের উপরে। ধ্বংসস্তূপে আটকে পড়েন তাঁরা। পুলিশ আসে। আসেন সোনারপুর উত্তর বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক ফিরদৌসি বেগমও।

হাসপাতালে তিন শ্রমিককে মৃত ঘোষণা করা হয়। আহতদের মধ্যে বামাচরণ সর্দার ও খোকন মণ্ডলকে পরে পাঠানো হয় বাঙুর হাসপাতালে। সাবস্টেশনের পাঁচিল ৬-৭ ফুট উঁচু। কাজের পরে ঠিকাদার মিঠুন সন্ধ্যায় শ্রমিকদের সঙ্গে সাবস্টেশনের পিছনে বসে হিসেব করছিলেন। আচমকাই পাঁচিল ধসে পড়ে তাঁদের উপরে। বাসিন্দাদের অভিযোগ, পাঁচিলের অবস্থা ভাল ছিল না। রক্ষণাবেক্ষণ হত না। বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘ঘটনাটি দুর্ভাগ্যজনক। রক্ষণাবেক্ষণের অভাব ছিল না। অতিবৃষ্টিতে মাটি আলগা হয়ে পাঁচিল ধসেছে।’’ তিনি জানান, মৃতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণের বিষয়টি নিশ্চিত করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আধিকারিকদের। আহতদের চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করা হবে।