• নিজস্ব সংবাদদাতা 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে অবরোধ

Clash
বাঁ দিকে ফাটছে বোমা। ডান দিকে ঘটনার পরে এলাকায় পুলিশ। হাড়োয়ায়। নিজস্ব চিত্র

তৃণমূলের এক গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে কাটমানি খাওয়ার অভিযোগ তুলে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাল দলের আরও এক গোষ্ঠী। বৃহস্পতিবার বিকেলে এই ঘটনায় বোমাবাজিও হয়েছে। দু’পক্ষ পরে মিছিল করে এলাকায়।

হাড়োয়ার গ্রামের এই ঘটনায় পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশ যায়। এই ঘটনায় তৃণমূলের হাড়োয়া পঞ্চায়েত সমিতির প্রাক্তন সভাপতি আব্দুল খালেক মোল্লা এবং তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি বজলুর রহমানের নাম জড়িয়ে যাওয়ায় দলের গোষ্ঠীকোন্দল প্রকাশ্যে আসে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, দীর্ঘ দিন ধরে হাড়োয়ার মেছোভেড়ি এলাকায় গোবেড়িয়ায় কয়েকশো বিঘা জমি পাট্টা পেয়েছেন কৃষকেরা। কিন্তু তাঁরা লিজের টাকা পান না বলে অভিযোগ। যে সমস্ত চাষি টাকা পাননি, তাঁরা খালেক গোষ্ঠীর। এ দিন তাঁরাই রহমান গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে কাটমানি খাওয়ার অভিযোগ তুলে পথ অবরোধ করেন। পাট্টা জমির লিজের টাকার দাবিতে হাড়োয়া-লাউহাটি রোড অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। ওই সময়ে একটি ইটভাটায় বোমা পড়তে শুরু করে। অভিযোগ, রহমান গোষ্ঠীর লোকজনই বোমা মেরেছে। খবর পেয়ে পুলিশ এসে লাঠি উঁচিয়ে দু’পক্ষকে সরিয়ে দেয়।    

খালেক বলেন, ‘‘সরকারি ভাবে বর্গা পাওয়া চাষিরা তাঁদের নায্য পাওনার দাবি করছেন। তা দেখে দলের অঞ্চল সভাপতি সিপিএমের বাহিনী নিয়ে বিক্ষোভ ভাঙার চেষ্টায় বোমা ছুড়েছেন। ঘটনাটি দলের ঊর্ধ্বতন নেতৃত্বকে জানানো হয়েছে।’’ রহমান পাল্টা বলেন, ‘‘তৃণমূলের পতাকা নিয়ে যাঁরা বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন, তাঁরা দলের কেউ নন। ওঁরা সকলে সিপিএমের। ঝামেলা বাধানোর জন্য হাতে তৃণমূলের পতাকা নিয়ে ঘুরছেন।’’ সিপিএম অবশ্য দাবি করেছে, এই ঘটনার সঙ্গে তাদের দলের কেউ যুক্ত নয়।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন