ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হল এক যুবকের। নাম স্বপন দাস (২২) ওরফে ঝোরো। বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তী থানার ৬ নম্বর সোনাখালি গ্রামে। গ্রামের মাঠে একটি গাছ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হয় তাঁর দেহ। স্বপনের পরিবারের দাবি, বছরখানেক ধরে একাদশ শ্রেণির এক ছাত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল স্বপনের। মাস দেড়েক আগে  বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে দু’জনে বিয়েও করেন। এই সম্পর্ক মেনে নেয়নি মেয়েটির পরিবার। মেয়েকে তাঁরা বাড়িতে ফিরিয়ে নেন। সম্পর্ক না রাখার জন্য হুমকি দেওয়া  হয়েছিল স্বপনকে, অভিযোগ পরিবারের। মনমরা হয়ে পড়েন স্বপন। বৃহস্পতিবার রাতে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আর ফেরেননি। শুক্রবার তাঁর দেহ উদ্ধার হয়। প্রাথমিক তদন্তে তাদের অনুমান, মানসিক অবসাদে আত্মঘাতী হয়েছেন ওই যুবক। একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করেছে পুলিশ। মেয়েটি স্বপনের সঙ্গে সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেছে। তার দাবি, জোর করে তুলে নিয়ে গিয়ে বিয়ে করেছিল স্বপন। স্কুলে যাওয়া আসার পথে অসুবিধাও করত।