• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কাজ হারানোর আশঙ্কায় রাত অবধি ঘেরাও খনিতে

workers agitation at Churulia
চুরুলিয়ায় বিক্ষোভে শ্রমিক-কর্মীরা। —নিজস্ব চিত্র।

কয়লা তোলার মেয়াদ শেষ হচ্ছে সংস্থার। এর পরে যারা বরাত পাবে, তারা সব শ্রমিককে কাজে নেবে কি না, তা নিশ্চিত নয়। কাজ হারানোর আশঙ্কায় ভুগে জামুড়িয়ায় মঙ্গলবার আধিকারিকদের বেশ কয়েক ঘণ্টা ঘেরাও করে রেখে বিক্ষোভ দেখালেন কয়েকশো শ্রমিক।

জামুড়িয়ার চুরুলিয়ায় রাজ্য বিদ্যুৎ বণ্টন সংস্থা নিয়ন্ত্রিত একটি খনিতে বেসরকারি ওই ঠিকা সংস্থা কয়লা তোলার বরাত পেয়েছিল। সংস্থাটি সূত্রে জানা গিয়েছে, সেই বরাত শেষ হয়েছে ২৮ মার্চ। এর পরে কোন সংস্থা সেখানে কয়লা তোলার দায়িত্ব পাবে তা এখনও স্থির হয়নি। আর তাতেই কাজ হারানোর ভয় করছেন শ্রমিকেরা।

এই খনিতে শ্রমিক-কর্মীর সংখ্যা প্রায় দু’হাজার। ঠিকাদার সংস্থাটি সূত্রে জানা গিয়েছে, ফের তারা বরাত না পেলে এখানে আর তারা কাজ করতে পারবে না। তাই চাকরির নিশ্চয়তা দেওয়া তাদের পক্ষে সম্ভব নয়। এ দিন দুপুরে শ্রমিক-কর্মীরা সংস্থার ম্যানেজার বিবি চন্দাকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ শুরু করেন। কিছুক্ষণ পরে বিদ্যুৎ বণ্টন সংস্থার তিন আধিকারিক সেখানে হাজির হলে তাঁদেরও ঘেরাও করা হয়। বিক্ষোভ-ঘেরাওয়ে হাজির ছিলেন প্রায় সব শ্রমিক-কর্মীই।

কর্মীরা ওই আধিকারিকদের কাছে জানতে চান, নতুন কোনও সংস্থা বরাত পেলে তাঁদের চাকরি থাকবে কি না। বিদ্যুৎ বণ্টন সংস্থার আধিকারিকরা জানিয়ে দেন, তাঁরা শুধুমাত্র কয়লা ব্লক পরিদর্শনে এসেছেন। যা বলার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বলতে পারবেন। আগাগোড়া ঘটনাস্থলে হাজির ছিল পুলিশ। তবে তারা বিক্ষোভকারীদের সরানোর চেষ্টা করেনি। রাত পর্যন্ত বিক্ষোভ চলে। শেষে আইএনটিটিইউসি নেতা বিদ্যুৎ রায়ের উপস্থিতিতে রাত সােড় ৯টা নাগাদ বিদ্যুৎ বণ্টন সংস্থার আধিকারিকেরা ওই ঠিকাদার সংস্থাকেই আপাতত কাজ চালানোর কথা বললে বিক্ষোভ থামে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন