মিনিবাস ও অটো চালকের মধ্যে গোলমালের জেরে সোমবার সকালে অশান্তি  বাধল দুর্গাপুরের বিধাননগরের চারশো মোড় এলাকায়। এর জেরে বেশ কিছুক্ষণ ৮-বি রুটে মিনিবাস চলাচল বন্ধ থাকে। বিপাকে পড়েন যাত্রীরা। পুলিশে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এক জন অটোচালক বাঁ দিক থেকে একটি মিনিবাসকে টপকে চলে যায়। এ নিয়ে সমস্যার সূত্রপাত। মিনিবাসের চালক ববি কর্মকারের দাবি, উল্টো দিক থেকে একটি গাড়ি আসছিল। দ্রুত ব্রেক না কষলে অটোয় ধাক্কা দিত মিনিবাসটি। বড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারত। তিনি অটোচালকে ও ভাবে ‘ওভারটেক’ করতে বারণ করেন। অভিযোগ, সে জন্য লোক জুটিয়ে তাঁকে ও বাসের এক বয়স্ক কর্মীকে মারধর করেন অটোচালক।

মিনিবাসের চালকের অভিযোগ, ‘‘আমার বাঁ চোখের নীচে ঘুষি মারা হয়। জামা ছিঁড়ে দেওয়া হয়।’’ বাসকর্মীর দাবি, তাঁর হাত মুচড়ে দেওয়া হয়েছে। দুর্ঘটনা এড়াতে ট্র্যাফিক আইন মেনে অটো চলাচলের পরামর্শ দিতে গিয়ে এ ভাবে হেনস্থা হতে হল বলে তাঁদের দাবি। অটোচালকের অবশ্য পাল্টা অভিযোগ, মিনিবাস থামিয়ে চালক ও কর্মী নেমে এসে তাঁকে মারধর শুরু করেন। তখন আশপাশ থেকে তাঁর পরিচিতেরা এসে তাঁকে উদ্ধার করেন।

এই ঘটনার প্রতিবাদে মিনিবাস চালকেরা ওই রুটে পরিষেবা বন্ধ করে দেন। সকালে ব্যস্ত সময়ে মুশকিলে পড়েন যাত্রীরা। মাঝ রাস্তায় অটো-টোটো না পেয়ে কী ভাবে গন্তব্যে পৌঁছবেন, দুশ্চিন্তায় পড়েন তাঁরা। শেষে পুলিশ এসে দু’পক্ষকে সরিয়ে দিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে। কিছুক্ষণ পরে মিনিবাস চলাচল শুরু হয়।  পুলিশ জানায়, কোনও লিখিত অভিযোগ জমা পড়েনি।