• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দুর্ঘটনায় মৃত সিভিক ভলান্টিয়ার

Death
প্রতীকী ছবি।

ডিউটি সেরে মাঝরাতে মোটরবাইকে বাড়িতে ফিরছিলেন দুই সিভিক ভলান্টিয়ার। মাঝপথে গাড়ির ধাক্কায় মৃত্যু হল এক জনের। মৃত সোমনাথ রায় (২৯) গলসির সুজাপুর গ্রামের বাসিন্দা। আহত রাজীব কার্ফা তাঁরই প্রতিবেশী। গলসি থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, এঁরা দু’জনেই সাময়িক ভাবে বর্ধমান সদর থানার অধীন তালিত রেলগেটে পথ নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন।  

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার রাতে তালিত থেকে গলসির গ্রামের বাড়িতে ফিরছিলেন ওই দু’জন। বাইক চালাচ্ছিলেন সোমনাথবাবু। দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়েতে ফাগুপুরের কাছে আচমকা একটি গাড়ির ধাক্কায় দু’জনেই রাস্তার উপরে ছিটকে পড়েন। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় সোমনাথবাবুর। পুলিশের দাবি, দু’জনের মাথাতেই হেলমেট ছিল। তবে ওই গাড়ির চাকায় পিষে যান সোমনাথবাবু। রাজীববাবুকে উদ্ধার করে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করায় পুলিশ। তাঁর পিঠে গুরুতর আঘাত লেগেছে বলেও হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে।

ওই রাতেই বন সুজাপুর গ্রামের বাড়িতে সোমনাথবাবুর মৃত্যুর খবর পৌঁছয়। শোকের ছায়া নামে গ্রামে। সোমনাথবাবুর বাবা অশোক রায় বলেন, “দুই মেয়ের বিয়ে দেওয়ার পরে সংসারে অভাব দেখা দিয়েছিল। ছেলেই ছিল একমাত্র রোজগেরে। এত কমবয়সে ছেলের মরা মুখ দেখতে হবে ভাবিনি।’’ শনিবার বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে দেহের ময়না-তদন্ত করানো হয়। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই গাড়ি ও চালকের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে।  

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন