• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

গুলি ছুড়ে বরকে বরণ, বিতর্ক

1
বন্দুক হাতে। নিজস্ব চিত্র

মাঝরাস্তায় দাঁড়িয়ে দোনলা বন্দুক থেকে শূন্যে গুলি ছুড়ে বরপক্ষকে অভ্যর্থনা জানানোর অভিযোগ উঠেছে কাটোয়া শহরে। যদিও পাত্রীর পরিবারের দাবি, ওই বন্দুকের লাইসেন্স তাঁদের কাছে রয়েছে। বিষয়টি পারিবারিক রীতি বলেও জানান তাঁরা।
বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে ‘সোশ্যাল মিডিয়া’য় ছড়িয়ে পড়ে কাটোয়ার মাধবীতলার গুলি ছোড়ার ওই ভিডিয়ো (যদিও তার সত্যতা যাচাই করেনি আনন্দবাজার)। তার পরেই নড়ে বসে পুলিশ। সন্ধ্যায় ওই বাড়িতে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। ওই বন্দুকটিও বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শহরের মাধবীতলা ও টেলিফোন ময়দান এলাকার মাঝামাঝি একটি লজে বুধবার রাতে সৈকত মিত্র ও পায়েল মণ্ডলের বিয়ের আসর বসে। পাত্রীর বাড়ি শহরের মাধবীতলায়। পাত্রের বাড়ি শহরের আর এক প্রান্ত, মাস্টারপাড়ায়। পাত্রীর পরিবারের দাবি, অনেক আগে থেকেই লাইসেন্স-সহ বন্দুক রয়েছে তাঁদের বাড়িতে। প্রথাগত ভাবে বিয়েতে বর আসার সময় এক রাউন্ড গুলি ছুড়ে স্বাগত জানান হয়। ওটা পাত্রকে বরণের একটা অঙ্গ। সেই মতো ওই রাতেও বরপক্ষ আসার মুহূর্তে বিয়ে বাড়ির সামনে রাস্তার বাজনার মাঝে কনেপক্ষের এক জন গুলি ছোড়েন। তবে কাটোয়া শহরে এর আগে তাঁদের পরিবারের কোনও বিয়ে হয়নি। ফলে গুলি ছোড়া হয়নি, জানান তাঁরা।

স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, এ রাজ্যে বিয়েতে গুলি চালানোর ‘রীতি’ নেই। তার পরেও ভরা রাস্তায় ওই ভাবে গুলি ছোড়া হল কেন। যে কোনও সময়ে বিপত্তি ঘটে যেতে পারত, দাবি তাঁদের। পুলিশ জানিয়েছে, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। বাড়ির লোকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন