• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আউশগ্রামে করোনায় আক্রান্ত চেন্নাই-ফেরত

Coronavirus
প্রতীকী ছবি।

ফের এক করোনা আক্রান্তের হদিস মিলল পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামে। এ বার চেন্নাই থেকে ফেরা আউশগ্রামের অমরপুরের এক ব্যক্তির শরীরে করোনার প্রমাণ মিলেছে বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে।

জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক প্রণব রায় শনিবার জানান, আউশগ্রামের এক ব্যক্তির করোনা-রিপোর্ট ‘পজ়িটিভ’ এসেছে। মহকুমাশাসক (বর্ধমান উত্তর) পুষ্পেন্দু সরকার বলেন, ‘‘আউশগ্রাম ২ ব্লকের অমরপুর পঞ্চায়েত এলাকা থেকে ওই পরিযায়ী শ্রমিককে কাঁকসার বেসরকারি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’’ প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, বছর পঞ্চাশের ওই ব্যক্তির প্রত্যক্ষ সংস্পর্শে পাঁচ জন এসেছেন বলে জানা গিয়েছে। তবে তাঁদের বর্ধমানের গাংপুরের বেসরকারি হাসপাতালে পাঠানো হয়নি। তাঁদের আলাদা জায়গায় ‘কোয়রান্টিন’-এ রাখার চেষ্টা করছে ব্লক প্রশাসন। পুলিশ এলাকা ‘সিল’ করেছে।

প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মাস চারেক আগে রাজমিস্ত্রির কাজের জন্য ওই ব্যক্তি চেন্নাইয়ে যান। তাঁর সঙ্গে সেখানে গিয়েছিলেন তাঁর স্ত্রী, শ্যালিকা এবং সাড়ে তিন বছরের ছোট ছেলে। স্ত্রী ও শ্যালিকা সেখানে একটি চামড়ার ব্যাগ তৈরির কারখানায় কাজ করতেন। তাঁরা এক সঙ্গেই সেখান থেকে মঙ্গলবারে এলাকায় ফেরেন। আউশগ্রাম ২ ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে শারীরিক পরীক্ষা করাতে গেলে তাঁদের অভিরামপুরে সরকারি নিভৃতবাস কেন্দ্রে পাঠানো হয়। সেখান থেকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে লালারসের নমুনা সংগ্রহের পরে বাড়িতে নিভৃতবাসে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার তাঁরা বাড়ি ফেরেন।

আউশগ্রাম ২ ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক উদয়চাঁদ ঘোষ বলেন, ‘‘শনিবার রিপোর্ট ওই ব্যক্তির করোনা-রিপোর্ট ‘পজ়িটিভ’ আসার পরেই তাঁকে কাঁকসার ‘কোভিড’ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’’ তাঁর সঙ্গীদের রিপোর্ট এখনও আসেনি বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। আউশগ্রামে এর আগে গঙ্গারামপুরের এক যুবক এবং মুম্বই থেকে চিকিৎসা করিয়ে ফেরা জয়রামপুরের এক মহিলা ও তাঁর ছেলের করোনা ধরা পড়েছিল।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন