• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আসানসোলে গ্রামের একমাত্র হিন্দু পরিবারের বৃদ্ধের সৎকার মুসলিম প্রতিবেশীদের

Asansol
হিন্দু বৃদ্ধের সৎকার মুসলিম প্রতিবেশীদের। নিজস্ব চিত্র।

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য নজির দেখল আসানসোল। জামুরিয়া থানার অন্তর্গত দেশেরমোহন গ্রামে বসবাস করে একটি মাত্র হিন্দু পরিবার। শনিবার সন্ধ্যায় সেই পরিবারের কর্তা বার্ধক্যজনিত কারণে মারা যান। মৃতের নাম রামধনু রজক (৮০)। এই মৃত্যুর খবর গ্রামের মুসলিম বাসিন্দারা রাতেই জানতে পারেন। তারপর গোটা গ্রাম একত্রিত হয়ে হিন্দু ধর্ম মতে সৎকারের সিদ্ধান্ত নেন।

তাঁরা রাতেই রামধনু রজকের ছেলে ও মেয়েদের খবর দেন। সকালে মৃতের এক ছেলে গ্রামে আসেন, বাকিরা থাকেন ভিন রাজ্যে, তাই তাঁরা সৎকারের কাজে পৌঁছতে পারেননি। গ্রামের বাসিন্দা শেখ ফিরদৌস বলেন, ‘‘দেশেরমোহন গ্রামে মোট পরিবার ২৩০টি,  তার মধ্যে মাত্র একটি হিন্দু পরিবার। কয়েকদিন আগে বার্ধক্যজনিত কারণে রামধনু রজক(৮০) অসুস্থ বোধ করেন। তখন সন্তানরা বাইরে থাকায় তার চিকিৎসার সমস্ত দায় মুসলিম প্রতিবেশীরাই নেন। দুর্গাপুরের বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয়। শেষমেষ রানীগঞ্জের একটি নার্সিংহোমে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই তিনি প্রয়াত হন।

স্থানীয় বাসিন্দা শেখ মুবারক জানান, ‘‘দেশেরমোহন গ্রামের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি গোটা এলাকার কাছে এক দৃষ্টান্ত। যিনি মারা গিয়েছেন, তিনি ধর্মীয় বিশ্বাসে হিন্দু হলেও আমাদের গ্রামেরই একজন সম্মাননীয় ব্যক্তি ছিলেন। এই গ্রাম প্রমাণ করল, মানুষ মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারে। সে হিন্দু হোক, মুসলিম হোক বা অন্য যে ধর্মেরই হোক না কেন।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন