বড় আগুন লাগল বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজবাটী ক্যাম্পাসে। রবিবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসে আগুন লেগে ভস্মীভূত হয় নথিপত্র, কম্পিউটার, আসবাব-সহ নানা জিনিস। খবর পেয়ে দমকলের দু’টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। 

রাজবাটী ক্যাম্পাসে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কাজকর্ম হয়। এই চত্বরে উপাচার্যের অফিসের ঠিক পিছনেই রয়েছে প্রেস। শনি ও রবিবার বিশ্ববিদ্যালয় ছুটি ছিল। এ দিন সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ হঠাৎ ওই প্রেসে আগুন লেগে যায়। কর্তব্যরত নিরাপত্তারক্ষীরা তা দেখতে পেয়ে আধিকারিকদের জানান। খবর দেওয়া হয় দমকলে। 

ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, প্রেসের ভিতরে দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে। জানলা দিয়েই সেই আগুনের শিখা বাইরে চলে আসছে। দমকলের দু’টি ইঞ্জিন এসে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। ঘটনাস্থলে আসেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার তোফাজ্জেল হোসেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের আধিকারিক অরিজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও অন্য কর্মীরা। 

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, প্রেসের ভিতরের ঘরগুলি পুড়ে গিয়েছে। রেজিস্ট্রার তোফাজ্জেল হোসেন জানান, প্রাথমিক ভাবে শর্ট সার্কিট থেকেই আগুন লেগেছে বলে মনে করা হচ্ছে। প্রশাসন এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ করেছে। ক্ষয়ক্ষতি কত, তা খোঁজ নিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান তিনি। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই প্রেসে বইপত্রের ডিটিপি-র কাজ হয়। এই ঘরে কম্পিউটার এবং ফাইল, কাগজপত্র ছিল। মূলত প্রেসের অফিস ও গুদামে আগুন লেগেছে। প্রেসের সুপারিন্টেন্ডেন্ট চন্দন পাল জানান, গুদামে থাকা যাবতীয় কাগজ, মজুত জিনিসপত্র পুড়ে গিয়েছে। কম্পিউটার, স্ক্যানারও পুড়ে গিয়েছে। তাঁর আক্ষেপ, ‘‘বড় ক্ষতি হয়ে গেল।’’