বাড়ি থেকে চার কিলোমিটার দূরে একটি চালাঘরে মিলল এক যুবকের ঝুলন্ত দেহ। রবিবার সকালে ভাতারের ভূমশোর গ্রামে দেহটি উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশ জানায়, মৃত সঞ্জয় রোমের (২১) বাড়ি সদর ভাতার এলাকায়। তিনি পেশায় গাড়িচালক।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাতে ভূমশোর গ্রামের এক যুবক ভাতার থানায় অভিযোগ করেন, তাঁর বোনকে উত্ত্যক্ত ও শ্লীলতাহানি করেছে সঞ্জয়। পুলিশের অনুমান, তার পরেই গভীর রাতে আলপথ ধরে চার কিলোমিটার পথ হেঁটে গিয়ে অভিযোগকারীর বাড়ির সামনে আত্মঘাতী হন সঞ্জয়। ঘটনার পর থেকে অভিযোগকারীর বাড়ি তালাবন্ধ।

অভিযোগকারী যুবকের বোন এ বছর মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসবে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, তার সঙ্গে প্রণয়ের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল সঞ্জয়ের। সেই সম্পর্কে টানাপড়েনের জেরে শনিবার বিকেলে রাস্তায় দু’জনের মধ্যে মারপিট হয়। খবর পেয়ে পুলিশ গেলে সঞ্জয় এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়। তার পরেই মেয়েটির দাদা ভাতার থানায় অভিযোগ জানান। পুলিশ সঞ্জয়ের বাড়িতে গিয়ে থানায় দেখা করার কথা বলে আসে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাতে বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়েন সঞ্জয়। রবিবার সকালে তাঁর দেহ উদ্ধারের পরে পুলিশ অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করেছে।