ভাইকে খুনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে দাদাকে গ্রেফতার করল পূর্বস্থলীর নাদনঘাট থানার পুলিশ। পুলিশ জানায়, ধৃতের নাম হামিদ শেখ। তার বাড়ি পূর্বস্থলী ১ ব্লকের হেমায়েতপুর মুসলিমপাড়ায়। পুলিশ জানায়, আদালতে নিহতের সাত বছরের ছেলের গোপন জবানবন্দি দেয়। তার পরেই এই পদক্ষেপ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ২০১৮-র ১২ নভেম্বর মুসলিমপাড়ায় বাড়িতেই একটি ঘরে মৃত্যু হয় নৌশাদ শেখ নামে বছর সাতাশের এক যুবকের। তাঁর বাবা আব্দুল রসিদ শেখ ২০১৯-র ৩ জানুয়ারি পুলিশকে জানান, ওই দিন রাতে মোটরবাইক কেনায় বাড়ির অদূরেই অন্যদের সঙ্গে খাওয়াদাওয়া সেরে রাত ১১টার পরে বাড়ি ফেরে নৌশাদ। রাতে ছেলের মৃত্যুর পরে বৌমা বিষয়টি তাঁদের নজরে আনেন, দাবি আব্দুলের। তাঁর অভিযোগ, ‘‘বৌমা ছোট ছেলেকে খুন করেছে।’’ পুলিশ জানায়, ওই ব্যক্তির বৌমা বধূ নির্যাতনের মামলাও দায়ের করে।

তবে ঘটনার মোড় ঘোরে সম্প্রতি, খবর পুলিশ সূত্রে। পুলিশ জানায়, ওই মৃত্যুর ঘটনায় সম্প্রতি নৌশাদের বছর সাতেকের ছেলে আদালতে জবানবন্দি দেয়। তাতে জানা যায়, হামিদ এই ‘খুনে’ জড়িত, জানায় পুলিশ। এর পরেই শনিবার হামিদকে গ্রেফতার করে পুলিশ। রবিবার ধৃতকে কালনা আদালতে তোলা হলে তাঁকে ১৪ দিন জেল-হাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।

যদিও হামিদের মা মোদিনা বিবির দাবি, ‘‘ছোট ছেলের মৃত্যুর দিনে ওর সঙ্গে হামিদের দেখা হয়নি। আমাদের বিশ্বাস, বৌমা ছোট ছেলেকে খুন করেছে। নাতি আদালতে বৌমার শেখানো কথা বলেছে।’’ পুলিশ জানায়, ঘটনার তদন্ত চলছে। দেখা হচ্ছে নৌশাদের দেহের ময়না-তদন্তের রিপোর্টও।