• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দুর্গাপুরে অবশেষে চালু রাতের বাস পরিষেবা

Durgapur
ছবি: সংগৃহীত

রাত নামলেই মিনিবাস উধাও হয়ে যায়। ফলে, স্টেশনে নেমে বাড়ি ফিরতে চূড়ান্ত সমস্যায় পড়তে হয়, দুর্গাপুরের নিত্যযাত্রীদের এমন অভিযোগ দীর্ঘদিনের। রাতে স্টেশন থেকে বাস চালুর দাবি জানিয়ে এসেছেন তাঁরা। কিন্তু যাত্রীর অপ্রতুলতার কারণ দেখিয়ে মিনিবাস মালিকদের সংগঠন বাস চালাতে রাজি হয়নি। অবশেষে মহকুমা প্রশাসনের উদ্যোগে সোমবার থেকে দুর্গাপুরে চালু হল রাতের বাস পরিষ‌েবা। মহকুমাশাসক অনির্বাণ কোলে জানান, দক্ষিণবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার (এসবিএসটিসি) একটি বাস রাত সাড়ে ১০টা নাগাদ স্টেশন থেকে ছেড়ে সারা শহর ঘুরে বেনাচিতির প্রান্তিকা বাসস্ট্যান্ডে যাবে।

দুর্গাপুর মহকুমায় ১৯টি রুটে প্রায় ২৭০টি মিনিবাস চলে। দিনে মিনিবাস মেলে নিয়মিত ব্যবধানে। কিন্তু রাত নামলেই একে-একে বিভিন্ন রুট থেকে বাস উধাও হয়ে যায় বলে অভিযোগ। সন্ধ্যার পরে রুটের অটোও মেলে না। চড়া ভাড়া দিয়ে ‘রিজ়ার্ভ’ করতে হয় বলেও দাবি করেন যাত্রীরা। তাই স্টেশন থেকে বাড়ি ফিরতে বেশ মুশকিল হয়। যাত্রীরা জানান, দুর্গাপুর স্টেশন থেকে সিটি সেন্টার হয়ে বেনাচিতির প্রান্তিকাগামী শেষ মিনিবাসটি ছাড়ে রাত ১০টা ২০ মিনিট নাগাদ। এলাহাবাদগামী বিভূতি এক্সপ্রেস পৌঁছনোর পরেই সেটি ছাড়ে। বেনাচিতি বা সিটি সেন্টার এলাকার যাত্রীরা সে বাসে গন্তব্যে পৌঁছে যেতে পারেন। কিন্তু ডিএসপি টাউনশিপের যাত্রীরা তা পারেন না। আবার দুর্গাপুর স্টেশন থেকে ৮-বি রুটের শেষ মিনিবাস ছাড়ে রাত ৯টা নাগাদ। ফলে, রাতে ট্রেন থেকে নেমে বিধাননগর, মুচিপাড়ার মতো কয়েকটি এলাকার যাত্রীরা সমস্যায় পড়েন।

মিনিবাস মালিকদের অভিযোগ, শহরে হাজার দু’য়েক অটো চলে। টোটো প্রায় দেড় হাজার। বেআইনি অটো-টোটোর দাপটে নাজেহাল দশা মিনিবাসের। যাত্রীর অভাবে ধুঁকছে মিনিবাস। সন্ধ্যার পরে, যাত্রী-সংখ্যা তলানিতে ঠেকে। তাই রাতে পরিষেবা দিয়ে পোষাবে না, দাবি তাঁদের। জানুয়ারির মাঝামাঝি জেলাশাসক শশাঙ্ক শেঠি সংশ্লিষ্ট দফতরের সঙ্গে বৈঠক করে অবিলম্বে শহরে রাতে বাস চালুর বিষয়টি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেন। শেষে সোমবার রাত থেকে চালু হল সেই পরিষেবা।

মহকুমাশাসক জানান, রাতে বাস না থাকা নিয়ে যাত্রীদের অভিযোগের সুরাহা করতে তিনি এসবিএসটিসি কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেছিলেন। তিনি বলেন, ‘‘এসবিএসটিসি নতুন একটি বাস দিয়েছে। সোমবার সেটির উদ্বোধন হয়। দুর্গাপুর স্টেশন থেকে বাসটি সারা শহর ঘুরে বেনাচিতির প্রান্তিকায় যাবে।’’ এসবিএসটিসি-র ম্যানেজিং ডিরেক্টর গোদালা কিরণকুমার বলেন, ‘‘এই পরিষেবায় রাতের যাত্রীদের                   সুবিধা হবে।’’

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, দুর্গাপুর স্টেশন থেকে ছেড়ে বাসটি সগরভাঙা, মুচিপাড়া, আড়রা মোড়, ব্যাঙ্ক কলোনি, হাডকো মোড় হয়ে বিধাননগরে পৌঁছবে। সেখান থেকে বি-১ মোড়, বি-২ বাজার, ডিভিসি মোড় হয়ে সিটি সেন্টার বাসস্ট্যান্ডে যাবে। এর পরে সেটি নন-কোম্পানি, ভগৎসিংহ মোড় হয়ে ডিএসপি টাউনশিপে ঢুকবে। চণ্ডীদাস বাজার, নিউটন রোড, ডিএসপি হাসপাতাল, সেকেন্ডারি  মোড় হয়ে বেনাচিতির প্রান্তিকা বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে যাত্রা শেষ করবে বাসটি। এর ফলে, শহরের প্রায় সব জায়গার বাসিন্দারাই সুবিধা পাবেন। শুধু নিত্যযাত্রীরা নন, সিটি সেন্টারে বাজার করতে আসা বা মাল্টিপ্লেক্সে রাতে সিনেমা দেখতে আসা মানুষজনেরও সুবিধা হবে বলে আশা প্রশাসনের।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন