যাত্রী সেজে ট্যাক্সি বা ভাড়ার গাড়ি ছিনতাইয়ের ঘটনা মাঝেমধ্যেই শোনা যায়। এ বার ছিনতাইবাজদের কবলে টোটো! চালককে অস্ত্র দেখিয়ে তাঁর টোটো ছিনতাই করে পালানোর অভিযোগ উঠছে গুসকরায়। বুধবার রাতে যেখানে ঘটনাটি ঘটে, সেটি গুসকরার প্রস্তাবিত থানা এলাকা থেকে এক কিলোমিটারের মধ্যেই। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সঞ্জীব বিশ্বাস নামে ওই টোটো চালক গুসকরা ফাঁড়িতে লিখিত অভিযোগ করেন।

গুসকরা চার নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা সঞ্জীব বছর দু’য়েক ধরে টোটো চালিয়ে সংসার চালান। সঞ্জীব জানিয়েছেন, বুধবার রাত সাড়ে আটটা নাগাদ বাড়ি ফেরার সময় গুসকরা বাসস্ট্যান্ড থেকে দু’জন হাত দেখিয়ে টোটো দাঁড় করিয়ে ভাতারের রামচন্দ্রপুরে ভাড়া যাবে বলে। তাদের নিয়ে তিনি রওনা দেন।

বলগোনা মোড় থেকে রামচন্দ্রপুরের দিকে কিছুটা এগোতেই একজন যাত্রী বমি করবে বলে টোটো দাঁড় করাতে বলে। সঞ্জীবের অভিযোগ, ‘‘টোটো দাঁড় করাতেই কোথা থেকে যেন আরও দু’জন চলে এল। চার জন মিলে লাঠি, ভোজালি দেখিয়ে আমাকে টোটো ছেড়ে দিতে বলে। মারধরও করে। ভয়ে টোটো ছেড়ে দিতে বাধ্য হই। ওদের এক জন টোটো চালিয়ে চলে যায়। বাকি তিন জন আমাকে নিয়ে পাশে মাঠের নিয়ে গিয়ে জামা খুলে চোখ মুখ বেঁধে দেয়। সঙ্গে থাকা টাকা, মোবাইলও কেড়ে নেয়।’’

ওই টোটো চালকের দাবি, অনেকক্ষণ সেখানে তাঁকে আটকে রাখা হয়। টোটো নিয়ে যে পালিয়েছিল, তাকে ওই তিন জন জিজ্ঞাসা করে নির্দিষ্ট জায়গায় সে পৌঁছেছে কিনা। তা নিশ্চিত হওয়ার পরে সঞ্জীবকে ছেড়ে দেওয়া হয়। রোজ সন্ধ্যায় ও রাতে ওই রাস্তা দিয়ে অনেকেই যাতায়াত করেন। অনেকে কর্মসূত্রে গুসকরা থেকে রাত ১০টাতেও মোটরবাইক বা সাইকেলে ওই রাস্তা দিয়েই বাড়ি ফেরেন। বুধবারের ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকাবাসীদের মধ্যে। তদন্ত করে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার প্রিয়ব্রত রায়। গুসকরা ফাঁড়ি তদন্তে নেমেছে।