• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দু’দিন পরে স্টেশনে উদ্ধার ছাত্র

abhishek
অভিষেক সিংহ। নিজস্ব চিত্র।

স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে নিখোঁজ স্কুলছাত্রকে উদ্ধার করা হল দুর্গাপুর স্টেশন থেকে। বুধবার অভিষেক সিংহ নামে ওই ছাত্রকে উদ্ধার করে রেলরক্ষী বাহিনী (আরপিএফ)। তাকে স্টেশনে ঘোরাঘুরি করতে দেখে সন্দেহ হয় আরপিএফের। জিজ্ঞাসাবাদ করে বাড়িতে খবর দেওয়া হয়। পরে তাকে পরিবারে হাতে তুলে দিয়েছে আরপিএফ। পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার আদালতে ওই ছাত্রের গোপন জবানবন্দি নেওয়া হবে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওল্ড কোর্ট মোড় লাগোয়া নঈমনগরের বাসিন্দা, একটি বেসরকারি পরিবহণ সংস্থার কর্মী রাজকুমার সিংহের ছেলে অভিষেক বেনাচিতির একটি বেসরকারি ইংরাজি মাধ্যম স্কুলে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে। সোমবার বিকেলে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে সে নিখোঁজ হয়ে যায়। প্রতিদিনই সাইকেলে করে বন্ধুদের সঙ্গে বাড়ি ফিরত অভিষেক। কিন্তু সে দিন এক ‘কাকু’র কাছে বাংলা পড়তে যাওয়ার নাম করে নতুনপল্লি থেকে সাইকেল নিয়ে সে অন্যদিকে চলে যায় বলে জানিয়েছিল বন্ধুরা। তার পর থেকে তার আর খোঁজ মিলছিল না।

বুধবার দুপুরে স্কুলের পোশাকে ওই ছাত্রকে দুর্গাপুর স্টেশনের ৪ নম্বর প্ল্যাটফর্মে ঘোরাঘুরি করতে দেখেন আরপিএফ কর্মীরা। বেশ কিছুক্ষণ এলেমেলো ভাবে ঘোরাঘুরি করতে দেখে তাঁরা ছেলেটির কাছে যান। আরপিএফের স্পেশ্যাল ব্রাঞ্চের কনস্টেবল সৌরভ মহাপাত্র জানান, শহরের এক ছাত্র নিখোঁজ হয়েছে, এই খবর তাঁদের জানা ছিল। তাই স্কুলের পোশাকে ছেলেটিকে ঘুরতে দেখেই সন্দেহ হয়। কিন্তু প্রথমে নাম-পরিচয় জানতে চাওয়া হলে ভয়ে কিছু বলতে পারছিল না অভিষেক। তখন তাকে আরপিএফের অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ওই পড়ুয়ার সঙ্গে থাকা স্কুলের পরিচয়পত্র দেখে তার বাড়িতে ফোন করে খবর দেওয়া হয়।

আরপিএফ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই ছাত্র তাদের জানিয়েছে, সে দিন বাড়ি ফেরার সময়ে নতুনপল্লিতে কেউ তাকে পিছন থেকে জাপটে ধরে। তার পরে তার আর কিছু মনে নেই। এ দিন ঘোর কাটার পরে সে কোনও ভাবে আসানসোল স্টেশনে পৌঁছয়। সেখান থেকে ট্রেন ধরে আসে দুর্গাপুরে। কিন্তু স্টেশন থেকে বাড়ি কী ভাবে যাওয়া যাবে, তা সে জানত না। তাই প্ল্যাটফর্মেই ঘোরাফেরা করছিল। আরপিএফ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই পড়ুয়ার বয়ানে কিছু অসংলগ্নতা রয়েছে। সে কখনও জানাচ্ছে, তাকে ধরে নিয়ে গিয়েছিল এক জন। আবার কখনও জানাচ্ছে, তিন জন ছিল। গোটা ঘটনাও ঠিক ভাবে সে এ দিন জানাতে পারেনি। ওই ছাত্রের রাজকুমারবাবু বলেন, ‘‘ছেলে এখনও আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে। তাই সে ভাবে কিছু বলতে পারছে না।’’

পুলিশ জানায়, ছেলেটিকে কেউ অপহরণ করেছিল না কি সে নিজেই কোথাও চলে গিয়েছিল, খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে ছেলেটির শরীরে কোনও আঘাতের চিহ্ন মেলেনি। কমিশনারেটের এসিপি (পূর্ব) সুব্রত দেব জানান, সব দিক খতিয়ে দেখে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। আজ, বৃহস্পতিবার দুর্গাপুর আদালতে অভিষেকের গোপন জবানবন্দি নেওয়া হবে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন