• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

১৫ দিন জল বন্ধ, অবরোধ ডিসেরগড়ে

agitation
কলসি, বালতি নিয়ে অবরোধ। নিজস্ব চিত্র।

Advertisement

পানীয় জলের দাবিতে প্রায় দু’ঘণ্টা বরাকর-পুরুলিয়া রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখালেন ডিসেরগড়ের বাসিন্দারা। শুক্রবারের ঘটনা। এর জেরে বিপাকে পড়েন নিত্যযাত্রী থেকে পড়ুয়ারা। তাঁদের ঘুরপথে গন্তব্যে পৌঁছতে হয়। বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ ডিসেরগড় ফাঁড়ির পুলিশ ও ইসিএল কর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আসানসোল পুরসভার ১০৪ নম্বর ওয়ার্ডের কয়েকশো বাসিন্দা এ দিন সকাল সাড়ে ৯টা নাগাদ বালতি, কলসি নিয়ে বরাকর-পুরুলিয়া রাজ্য সড়কের মাঝে বসে পড়েন। আড়াআড়ি ভাবে ওই রাস্তায় বাঁশ ফেলে দেন বাসিন্দারা। তাঁরা জানান, হাসপাতাল কলোনি, নেতাজি কলোনি, বানডাঙা এলাকায় ইসিএল পাইপলাইনের মাধ্যমে জল সরবরাহ করে। সেই জলই তাঁদের একমাত্র ভরসা। তাঁদের অভিযোগ, ‘‘১৫ দিন ধরে পানীয় জল মিলছে না। ইসিএল কর্তৃপক্ষকে বলেও সুরাহা হচ্ছে না।’’ প্রতিকারের দাবিতে এ দিন বিক্ষোভ-অবরোধ শুরু করেন বাসিন্দারা।

খবর পেয়ে প্রথমে পুলিশ গিয়ে বুঝিয়ে অবরোধ তোলার চেষ্টা করে। কিন্তু বাসিন্দারা দাবি জানান, ইসিএল কর্তাদের এসে জল সরবরাহের প্রতিশ্রুতি দিতে হবে। এর পরেই পুলিশ ও কাউন্সিলর বাপ্পা আচার্যের উদ্যোগে এলাকায় আসেন ইসিএলের টাউন দফতরের ডিজিএম ডিপি সিংহ। কাউন্সিলর জানান, কয়লাখনি রাষ্ট্রীয়করণের সময় সিদ্ধান্ত হয়েছিল, ইসিএল কার্যালয়ের পাঁচ কিলোমিটার এলাকার মধ্যে থাকা ব্যক্তিগত কলোনি ও গ্রামগুলিতে ইসিএলকেই জল সরবরাহ করতে হবে। তাঁর অভিযোগ, এই সব এলাকায় ১৫ দিন ধরে জল সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। অথচ, ইসিএল কর্তাদের দেলদোল নেই।

ডিজিএম ডিপি সিংহের দাবি, ‘‘পাইপলাইন ফাটিয়ে অবৈধ ভাবে সংযোগ নেওয়ার ফলে এই বিপত্তি। তবে দ্রুত জল সরবরাহের চেষ্টা করা হচ্ছে।’’ আসানসোল পুরসভার মেয়র পারিষদ (জল) পূর্ণশশী রায় জানান, পুরসভার জল প্রকল্পের পাইপলাইন ওই এলাকাতেও পাতা হয়েছে। আগামী বছরেই পুরসভার জল পাবেন বাসিন্দারা।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন