• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নিত্যানন্দের বাড়ি থেকে দু’টি বন্দুক বাজেয়াপ্ত

Crime
প্রতীকী ছবি

তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগে ধৃত গুসকরার নিতাই চট্টোপাধ্যায় ওরফে নিত্যানন্দের বাড়ি থেকে দু’টি বন্দুক উদ্ধার করল পুলিশ। শনিবার দুপুরে তাঁকে নিয়ে পুলিশ তাঁর গুসকরা হাটতলার বাড়িতে আসে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বাড়ি থেকে একটি রিভলভার, একটি দু’নলা বন্দুক এবং দু’টি গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। দু’টি বন্দুকের লাইসেন্সও বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ। পুলিশের তরফে পুরো বিষয়টি ভিডিয়োগ্রাফি করা হয়।

অনুব্রতবাবুকে খুনের হুমকি দেওয়া একটি অডিয়ো-বার্তা (সত্যতা যাচাই করেনি আনন্দবাজার) সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। এক তৃণমূল কর্মী বিষয়টি নিয়ে নিত্যানন্দবাবুর বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ করলে, পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে। শুক্রবার আদালতের নির্দেশে নিত্যানন্দবাবুকে চার দিনের জন্য হেফাজতে পায় পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় তাঁকে গুসকরা ফাঁড়িতে আনা হয়। তদন্তকারীদের দাবি, জেরায় তাঁদের কাছে ধৃত বন্দুক দু’টির কথা জানান। এ দিন বাড়ি গিয়ে একটি সিন্দুক থেকে বন্দুক দু’টি বার করে পুলিশের হাতে তুলে দেন তিনি। তাঁর ঘরেও তল্লাশি চালায় পুলিশ।

এ দিন নিত্যানন্দবাবুর স্ত্রী স্বপ্না চট্টোপাধ্যায় দাবি করেন, “উনি (নিত্যানন্দবাবু) দীর্ঘদিন ধরে বহু প্রতিকূল পরিস্থিতির সঙ্গে লড়াই করে তৃণমূল করছেন। এই বয়সে এসে তাঁকে দলেরই লোকেরা এ ভাবে ফাঁসিয়ে দিল, এটা মেনে নেওয়া যাচ্ছে না!’’ নিত্যানন্দবাবুর ছোট ছেলে মিঠুন চট্টোপাধ্যায়ের দাবি, তাঁর বাবা পুলিশকে যথেষ্ট সহযোগিতা করেছেন। এ দিন নিত্যানন্দবাবুকে বাড়িতে আনার সময়ে এলাকার অনেকে ভিড় জমান। পুলিশের তরফে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। পুলিশ জানায়, যে অডিয়ো-বার্তাটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছিল, সেটিতে নিত্যানন্দবাবুর গলার আওয়াজ রয়েছে কি না, তা জানতে তাঁর স্বর রেকর্ড করা হবে।

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন