• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

খানিক স্বস্তিতে মদ ব্যবসায়ীরা

মদের দোকান থেকে আসা রাজস্ব বাঁচাতে বেশ কিছু রাস্তাকে রাজ্য সড়কের তকমা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। বর্ধমান জেলার এমন বেশ কিছু রাস্তা রয়েছে সেই তালিকায়। এর ফলে প্রায় কুড়িটি মদের দোকান বন্ধ হওয়া থেকে বাঁচবে বলে মনে করা হচ্ছে।

গ্রামীণ এলাকায় যে ক’টি রাস্তাকে এই তালিকায় রাখা হয়েছে, তাতে ১৫টি মদের দোকান বাঁচবে বলে প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে। এ ছাড়া পানাগড়-ইলামবাজার রাস্তায় কাঁকসা এলাকায় দু’টি মদের দোকান বন্ধ হয়েছিল। দোমড়ায় বার কাম রেস্টুরেন্ট, তার সঙ্গে একটি মদের দোকান রয়েছে। আর একটি মদের দোকান রয়েছে এগারো মাইল এলাকায়। ১ এপ্রিল থেকে ওই দু’টি দোকানই বন্ধ হয়ে যায়। রাজ্য সরকারের নতুন সিদ্ধান্তের কথা জানার পরে আশার আলো দেখছেন দোকান মালিকেরা। তবে এখনও পর্যন্ত নতুন কোনও নির্দেশিকা আবগারি দফতর থেকে পাননি বলে জানান তাঁরা।

ব্লক প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার পর্যন্ত রাস্তার তকমা বদলের কোনও নির্দেশিকা মেলেনি। একই কথা জানায় পূর্ত দফতরও। তবে জেলা আবগারি দফতরের এক কর্তা বলেন, ‘‘রাজ্য সড়কের উপরে অনেক মদের দোকান রয়েছে। খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জিপিএস-এর সাহায্যও নেওয়া হচ্ছে।’’ মদের দোকান অন্যত্র সরালে রাজ্যের ফি মকুবের সিদ্ধান্তেও খানিকটা স্বস্তিতে জাতীয় সড়কের পাশে থাকা বিভিন্ন দোকানের মালিকেরা। ফরিদপুরের এমনই এক দোকানের মালিক আনন্দময় ঘোষ বলেন, ‘‘আমার দোকানে ২০ জন কর্মী। ব্যবসা তো লাটে উঠছিলই, এই কর্মীরাও বিপদে পড়ছিলেন। সরকার এমন সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকলে আমরা আবার ঘুরে দাঁড়াতে পারব।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন