• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আরামবাগ সুপার স্পেশালিটিও এ বার কোভিড হাসপাতাল

Hospital
আরামবাগ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল। — নিজস্ব িচত্র

এতদিন একটি নার্সিংহোমকে কোভিড হাসপাতাল করে করোনা পজিটিভ রোগীদের রাখা হচ্ছিল। এ বার আরামবাগ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালকে ২০০ শয্যার কোভিড হাসপাতাল করা হচ্ছে।

 হুগলি জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক শুভ্রাংশু চক্রবর্তী বলেন, “করোনা মোকাবিলায় আরামবাগ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালকে ২০০ শয্যার কোভিড হাসপাতালে রূপান্তরিত করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। সেখানে ১০ শয্যার সিসিইউ (ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিট) আছে। প্রয়োজনে এই ইউনিট বাড়ানোরও জায়গা থাকছে।”

পরিযায়ী শ্রমিক আসা শুরু হওয়ার পরই হুগলি জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। সমস্যা বাড়ছে আরামবাগ মহকুমায়। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রের হিসাবে, বুধবার সকাল পর্যন্ত শুধু এই মহকুমায় করোনা পজিটিভ পরিযায়ী শ্রমিকের সংখ্যা দেড়শো ছুঁয়েছে। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, এই প্রবণতা নিয়ে গত ৩১ মে একটি ভিডিও কনফারেন্সে রাজ্যের স্বাস্থ্য কর্তারা আরামবাগ সুপার স্পেশালিটিকে কোভিড হাসপাতালে রূপান্তরিত করার বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেন। গত সোমবার স্বাস্থ্যকর্তারা হাসপাতালটি পরিদর্শন করেন। মঙ্গলবার স্বাস্থ্যভবন থেকে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয় সিদ্ধান্তের কথা।  

 ২০০ শয্যার কোভিড হাসপাতালে রূপান্তরিত করা আরামবাগ সুপার স্পেশালিটিতে ১০টি শয্যার সিসিইউ-তো আছেই। পরিস্থিতি মোকাবিলায় আরও ১৫ শয্যার সিসিইউ করতে সংযুক্ত বার্ন ইউনিটটি নেওয়া যাবে। চারটি ভেন্টিলেটর থাকলেও আরও ৩টি ভেন্টিলেটর প্রয়োজন। রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা মাপার যন্ত্র পালস অক্সিমিটার যথেষ্ট থাকলেও আরও ১৫টির প্রয়োজন। সিসিউ এবং ওটিতেও  শ্বাসকষ্টজনিত সঙ্কট রুখতে বিশেষ সরঞ্জাম রাখার প্রস্তাব-সহ যাবতীয় প্রয়োজনীয় সরঞ্জামে হাসপাতাল বুধবারের মধ্যেই সাজিয়ে ফেলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন