লক্ষ্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘‘ভিশন ’২১’’। তা সামনে রেখেই ২০১৭-’১৮ আর্থিক বছরের বাজেট পেশ করল হাওড়া পুরসভার তৃণমূল বোর্ড।

২০১৩-এ ক্ষমতায় এসে থেকে প্রতি বছরই ঘাটতিশূন্য বাজেট করে এই বোর্ড। শুক্রবার পুর বাজেট পেশ করে মেয়র রথীন চক্রবর্তী বলেন, ‘‘হাওড়ার সামগ্রিক উন্নয়নকে সামনে রেখে পুরসভার ইতিহাসে ৭৮০ কোটি ৫৫ লক্ষ টাকার ঘাটতিশূন্য বাজেট পেশ করা হয়েছে। বাজেটে নাগরিক পরিষেবা ও শহরের উন্নয়নের পাশাপাশি পুরসভার অস্থায়ী ৯ হাজার কর্মীর বছরে তিন শতাংশ বেতন বৃদ্ধি-সহ মুখ্যমন্ত্রীর ‘ভিশন ২১’-কে সার্থক রূপ দেওয়ার পরিকল্পনা হয়েছে।’’

এ দিন মেয়র জানান, এ বছরে উন্নয়ন খাতে বরাদ্দ হয়েছে ৫৫৪ কোটি ৬৬ লক্ষ টাকা। তিনি আরও জানান, এ বার বাজেটে সব পুরকর্মীর জন্য মেডিক্যাল গ্রুপ ইনশিওরেন্স চালু করার পরিকল্পনা আছে। চালু হচ্ছে কাউন্সিলরদের মেডিক্লেম ও ভ্রমণসাথী প্রকল্প। মেয়র জানান, এই সব খাতে যে ২ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা খরচ হবে, তা পুরসভার নিজস্ব তহবিল থেকে দেওয়া হবে।

এ দিনের সভায় ছিলেন সিপিএম ও বিজেপি-র তিন কাউন্সিলর। সিপিএম কাউন্সিলর আসরাফ জাভেদ বলেন, ‘‘আমরাও ভ্রমণের জন্য ভাতা পাব। আসলে তৃণমূল তো মানুষকে আনন্দ দিয়ে বাকি সব যন্ত্রণা ভুলিয়ে রাখতে চায়।’’