• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি আরামবাগের ৬০০ গ্রামসম্পদ কর্মীর

main
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

স্থায়ীকরণ এবং সাম্মানিক বৃদ্ধির দাবিতে আরামবাগ মহকুমার প্রায় ৬০০জন গ্রাম সম্পদ কর্মী মুখ্যমন্ত্রীর কাছে স্পিড পোস্টে চিঠি পাঠালেন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে মহকুমা ডাকঘর থেকে এই কর্মসূচি চলে। গ্রাম সম্পদ কর্মী সংগঠনের পক্ষে গোঘাটের শিবুরাম রায় বলেন, “বুধবার এবং বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি পাঠানোর এই কর্মসূচিতে রাজ্যের ৩৩ হাজার গ্রাম সম্পদকর্মী যোগ দিয়েছেন।’’

জেলা প্রাশসন সূত্রে জানা যায়, পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দফতর থেকে চুক্তিভিত্তিক ওই কর্মীদের নিয়োগ হয়েছিল ১০০ দিনের কাজ, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা এবং জাতীয় সামাজিক সহায়তা প্রকল্পগুলির দেখাভালের জন্য। পঞ্চায়েত পিছু গড়ে ১০ জন করে গ্রাম সম্পদ কর্মী আছেন। তাঁদের দায়িত্ব এবং কর্মদিবসও বাড়ানোরা দাবি দীর্ঘ দিনের। 

শুরুতে ছিল মাত্র ১৫ দিন। দৈনিক সাম্মানিক ছিল ৩৬০ টাকা। পরে মশাবাহিত রোগ দমনেও বছরে আরও ২৪০ দিন কাজের দিন বাড়ে। এই ২৪০ দিনের দৈনিক সাম্মানিক ১৫০ টাকা করে। 

 গ্রাম সম্পদ কর্মীদের অভিযোগ, “ওই সামান্য টাকাও চার থেকে পাঁচ মাস অন্তর আমাদের দেওয়া হয়। টাকার অনেকটাই বিভিন্ন গ্রামে ঘুরতে  গিয়ে খরচ হয়ে যায়। সংসার চালাব কী করে?’’

শিবুরাম রায় জানান, “আগামী ২৫ মার্চের মধ্যে মুখ্যমন্ত্রীর বিষয়টা বিবেচনা করবেন আশা আমাদের। আর তা যদি ২৫ মার্চের মধ্যে না হয়, সংগঠন থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ২৬ মার্চ থেকে আমরণ অনশনে বসব আমরা।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন