রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা দুধের গাড়িতে ধাক্কা মেরে উল্টে গেল বাস। সোমবার ভোরে ডোমজুড়-হাওড়া রোডের এই দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন বাসের কন্ডাক্টর দীনবন্ধু পাখিরা (৪৫)। তিনি হুগলির খানাকুলের পান্তহরি গ্রামের বাসিন্দা। দুর্ঘটনায় জখম হন পাঁচ মহিলা-সহ বাসের ২২জন যাত্রী। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এ দিন হুগলির রাজারহাট থেকে কয়েকজন যাত্রী নিয়ে বাসটি হাওড়া যাচ্ছিল। সেই সময় ডোমজুড় গ্রামীণ হাসপাতালের কাছে দাঁড়িয়ে থাকা একটি দুধের গাড়ির সাথে ধাক্কা লেগে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায় বাসটি। ঘটনাস্থলেই মারা যান দীনবন্ধুবাবু।  জখমদের উদ্ধার করে ডোমজুড় গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। আহতদের মধ্যে পাঁচ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁদের হাওড়া জেলা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। বাস ও দুধের গাড়ি—দু’টিকেই আটক করেছে। তবে চালকরা পলাতক। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে বাসটি দ্রুত গতিতে যাচ্ছিল। বাসের ছাদেও যাত্রী ছিল। নিয়ন্ত্রণ রাখতে না পেরেই উল্টে যায় বাসটি। হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে এর যাত্রী বলেন, ‘‘আমরা চালককে আস্তে গাড়ি চালানোর জন্য বারবার বলছিলাম। কথা কানেই তুলল না। তাই এই পরিণতি।’’