একটি কুকুরের কান কাটার অভিযোগে এক মদ্যপকে গ্রেফতার করল পুলিশ। রবিবার রাতে উত্তরপাড়ার মাখলার এই ঘটনায় ধৃতের নাম শম্ভু ঢালি। সোমবার ধৃতকে শ্রীরামপুর আদালতে পাঠানো হলে বিচারক জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন। চন্দননগর কমিশনারেটের এক কর্তা বলেন, ‘‘ওই যুবক নিজেই কুকুরটির কান কাটার কথা স্বীকার করেছেন। পশুর উপর নির্যাতনের ধারায় ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।’’

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মাখলার একটি হোটেলের কর্মচারী শম্ভু প্রতি রাতেই মদ খেয়েই বাড়ি ফেরেন। তাকে দেখেই চিৎকার শুরু করে কুকুররা। রবিবার রাতে ওই কুকুরদের একটিকে ধরে ব্লেড দিয়ে কান দেয় শম্ভু। 

ঘটনাস্থলে আসেন এলাকার বাসিন্দারা। প্রথমে বিষয়টি অস্বীকার করে শম্ভু। পরে সে কুকুরের কান কেটে দেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে। এরপর পুলিশ এসে শম্ভুকে 

গ্রেফতার করে।