শহরের টোটোর দাপট নিয়ে অভিযোগ নতুন নয় শ্রীরামপুরের বাসিন্দাদের। অবশেষে টোটোতে রাশ টানতে কোমর বেঁধে নামছে শ্রীরামপুর পুরসভা।

সম্প্রতি কাউন্সিলরদের বৈঠকে টোটো নিয়ে আলোচনা হয়। সিদ্ধান্ত হয়, পুরসভার ২৯টি ওয়ার্ড ধরে গোটা অগস্ট মাস পর্যন্ত টোটোর শনাক্তকরণের কাজ চলবে। শুক্রবার থেকে কাজ শুরুও হয়ে গিয়েছে। পুরপ্রধান অমিয় মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘‘টোটো নিয়ে প্রতি দিন অভিযোগ আসছে। টোটো নিয়ন্ত্রণ করা গেলে মানুষের সমস্যা অনেকটাই
লাঘব হবে।’’

এই প্রক্রিয়ার ফলে কী
সুবিধা হবে?

পুরসভা সূত্রের খবর, শহরে কমপক্ষে দু’হাজার টোটো চলে। এর মধ্যে অর্ধেক আশপাশের শহর থেকে এখানে ঢোকে। নয়া ব্যবস্থায় শহরে পুরসভায় নথিভুক্ত টোটোই যাতায়াত করবে। বাইরের টোটো শহরে লোক নিয়ে আসতে পারবে। তবে যাত্রী নামিয়ে তাদের ফিরে যেতে হবে। যাত্রী তুলতে পারবে না। এই ব্যবস্থা চালু হলে টোটোর সংখ্যা প্রায় অর্ধেক হয়ে যাবে বলে দাবি পুরকর্তাদের। প্রয়োজনে টোটোর নির্দিষ্ট রুট বেঁধে দেওয়া হবে।

পুরসভার প্রতি ওয়ার্ডে সর্বোচ্চ ৩০টি টোটো নথিভুক্ত করানো হবে। সেগুলি হলুদ রং করা হবে। নির্দিষ্ট নম্বর প্লেট লাগানো হবে। ফলে সহজেই বাইরের টোটোর থেকে পৃথক করা যাবে। কোন টোটো পুরসভার কোন ওয়ার্ডের তা-ও বোঝা যাবে সিরিয়াল নম্বর দেখে। টোটোর জন্য পুরসভা একটি ওয়েবসাইটও চালু করেছে। তাতে নথিভুক্ত প্রত্যেকটি টোটোর বিস্তারিত তথ্য থাকবে। কোনও ঘটনা ঘটলে সহজেই সংশ্লিষ্ট টোটোকে চিহ্নিত করা যাবে। যাত্রী বা সাধারণ মানুষ এর মাধ্যমে অভিযোগও জানাতে পারবেন। টোটোর স্টিকারে ওয়েবসাইটের পাশাপাশি পুর-কর্তৃপক্ষ, টোটো-ইউনিয়ন এবং ট্রাফিক-কর্তৃপক্ষের হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরও দেওয়া থাকবে। এতেও অভিযোগ জানানো যাবে।

এর আগেও একাধিক বার পুরসভার তরফে টোটো নিয়ন্ত্রণের আশ্বাস দেওয়া হলেও কাজের কাজ হয়নি। এক কাউন্সিলরের দাবি, ‘‘এ বার যে ভাবে পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করার কাজ চলছে, তেমনটা আগে হয়নি। ফলে কাজের কাজ
নিশ্চয়ই হবে।’’

চন্দননগর কমিশনারেট সূত্রের খবর, শ্রীরামপুর স্টেশন চত্বর, নেতাজি সুভাষ অ্যাভেনিউ, বিপি দে স্ট্রিট, বটতলা-সহ নানা ঘিঞ্জি জায়গায় অতিরিক্ত টোটোর জন্য যান চলাচলে সমস্যা হয়। কয়েকটি জায়গায় টোটোকে বাগে আনতে গিয়ে রাজনৈতিক নেতাদের একাংশের হস্তক্ষেপে তা সম্ভব হয়নি বলেও পুলিশের একংশের দাবি। কমিশনারেটের এক আধিকারিক বলেন, ‘‘পুরসভায় নথিভুক্তির কাজ শেষ হলে পুলিশের তরফে টোটো নিয়ন্ত্রণে উপযুক্ত পদক্ষেপ করা হবে।’’