• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ট্যাঙ্কারে ধাক্কা বাসের, জখম ১২

main
ভগ্ন: ভেঙে গিয়েছে বাসের সামনের অংশ। ছবি: সুব্রত জানা

ঝিরঝিরে বৃষ্টির মধ্যে লরির সঙ্গে চলছিল রেষারেষি। যাত্রীদের বারণ শোনেননি বাস-চালক। সেটাই কাল হল। প্রথমে লরির পাশে ধাক্কা লাগে বাসটির। তারপরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্যাঙ্কারের পিছনে ধাক্কা। শুক্রবার সকালে উলুবেড়িয়ার বীরশিবপুরে ৬ নম্বর জাতীয় সড়কে এই দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম হলেন ১২ জন বাসযাত্রী।

ওই বেসরকারি বাসটি উত্তর ২৪ পরগনার শ্যামনগর থেকে দিঘা যাচ্ছিল। পুলিশ জানিয়েছে, জাতীয় সড়কে লাগানো সিসিক্যামেরার ফুটেজ দেখে দুর্ঘটনার তদন্ত হবে। বাসটি আটক করা হয়েছে। তিনটি গাড়িরই চালক পলাতক। বীরশিবপুরের এক ব্যবসায়ী বলেন জাতীয় সড়কের ধারে বেশির ভাগ সময়েই বড় ট্রাক, ট্রেলার ও ট্যাঙ্কার দাঁড়িয়ে থাকে। যেখানে-সেখানে ইট-বালি-পাথরও পড়ে থাকে। এর জেরে কুয়াশা বা বৃষ্টির সময় প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ যদি জাতীয় সড়কে এই ‘দখলদারি’ বন্ধ করে, তা হলে দুর্ঘটনা কমবে।’’ কৌশিক সাহা নামে এক বাসযাত্রী বলেন, ‘‘বাস-চালককে বারবার আস্তে চালাতে বলছিলাম। কিন্তু চালক শোনেননি। তার জেরেই এই দুর্ঘটনা হল।’’

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বাসটিতে প্রায় ৪০ জন যাত্রী ছিলেন। ভোর ৫টা নাগাদ বাসটি শ্যামনগর থেকে ছাড়ে। দুর্ঘটনাটি ঘটে ৭টা নাগাদ। বাসের সামনে অংশ দুমড়ে-মুচড়ে যায়। আহতদের প্রথমে উলুবেড়িয়া ইএসআই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু তাঁদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় পরে উলুবেড়িয়া মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করানো হয়। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন