Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

টুকরো খবর

নন্দীগ্রাম নিখোঁজ মামলায় অভিযুক্ত সিপিএম নেতা লক্ষ্মণ শেঠ, অমিয় সাহু, অশোক গুড়িয়া-সহ ৫৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জগঠনের দিন পিছিয়ে গেল। নন্দীগ্রামে

০৪ মার্চ ২০১৪ ০৬:৩৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

ফের পিছোল চার্জগঠন

নিজস্ব সংবাদদাতা • তমলুক

নন্দীগ্রাম নিখোঁজ মামলায় অভিযুক্ত সিপিএম নেতা লক্ষ্মণ শেঠ, অমিয় সাহু, অশোক গুড়িয়া-সহ ৫৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জগঠনের দিন পিছিয়ে গেল। নন্দীগ্রামে জমিরক্ষা আন্দোলনের পর্বে সিপিএমের পুনর্দখল অভিযানের সময় ২০০৭ সালের ১০ নভেম্বর ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটির মিছিলে সিপিএমের সশস্ত্র হামলায় প্রতিরোধ কমিটির বেশ ক’য়েক জন আহত হন। ৬ জন নিখোঁজও হন। ওই মামলায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠনের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা আদালতে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে চার্জগঠনের জন্য সোমবার জেলা আদালতের বিচারক মধুমতি মিত্রের এজলাশে অভিযুক্তদের তরফে আবেদনের শুনানির পর বিচারক আগামী ৬ মার্চ ওই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেন।

Advertisement

দাসপুর থেকে নিখোঁজ ছাত্রের সন্ধান বালেশ্বরে

স্কুলে যাওয়ার পর শনিবার থেকে নিখোঁজ ছিল ষষ্ঠ শ্রেণির দুই পড়ুয়া। সোমবার দুপুরে ওড়িশার বালেশ্বর রেল স্টেশনে তাদের সন্ধান মিলল। এ দিন দুপুরে বালেশ্বর স্টেশনের রেল পুলিশ দাসপুর থানায় তাঁদের উদ্ধারের খবর দেয়। খবর পেয়ে ওই কিশোরদের ফিরিয়ে আনতে দাসপুর থানার পুলিশ বালেশ্বরে রওনা দেয়। তাঁদের সঙ্গে ওই দুই কিশোরের বাড়ির লোকেরাও রওনা দেয়। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, দাসপুরের তিয়রবেড়িয়া হাইস্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির দুই ছাত্র সুমন হাজরা এবং শম্ভু মাইতি শনিবার স্কুলে ক্লাস করার পর আর বাড়ি ফেরেনি। দু’জনেরই বাড়ি স্থানীয় রবিদাসপুর গ্রামে। রবিবার বিকেলে তাঁদের খোঁজ না মেলায় ওই দুই কিশোরের বাড়ির লোকেরা দাসপুর থানায় নিখোঁজ ডায়েরি দায়ের করেন। সোমবার দুপুরে বালেশ্বর স্টেশনের রেল পুলিশের কাছ থেকে খবর পেয়েই দাসপুর থানার পুলিশ সুমন ও শম্ভুর বাড়িতে খবর দেয়। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, এ দিন সকালে ওই দুই কিশোর ট্রেন থেকে বালেশ্বর স্টেশনে নামে। স্টেশনে নামার পরই তাদের দেখে রেল পুলিশের সন্দেহ হয়। পরে জেরায় তারা সব ঘটনা রেল পুলিশকে জানায়। তবে কী কারণে এবং কী ভাবে তারা স্কুল থেকে পালিয়েছিল-তা জানতে পারেনি পুলিশ।

রাস্তার শিলান্যাস

রাজ্যে পরিবর্তনের পর গত ৩৩ মাস ধরে গ্রামবাংলার মানুষ উন্নয়নের স্বাদ অনুভব করতে পারছেন। রবিবার এগরা ১ ব্লকের বোলকুশদায় প্রধানমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনা প্রকল্পে চাটলা-বহলিয়া ভায়া মীরগোদাগঞ্জ পাকা সড়ক নির্মাণের শিলান্যাস করে এই মন্তব্য করেন কাঁথির সাংসদ শিশির অধিকারী। শিশিরবাবু বলেন, “গ্রাম বাংলার প্রত্যন্ত এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে রাস্তাঘাট ও সেতু তৈরি হচ্ছে। তাছাড়াও রাজ্যের সংখ্যালঘু, পিছিয়ে পড়া মানুষ থেকে ছাত্রছাত্রীদের উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি রূপায়িত হচ্ছে।” তিনি আরও বলেন, “এই রাস্তাটির নির্মাণ কাজ শেষ হলে রামনগর ও এগরা এলাকার বাসিন্দারা উপকৃত হবেন। পাশাপাশি পড়শি রাজ্য ওড়িশার সঙ্গেও যোগাযোগের সুবিধা হবে।” জেলা মৎস্য কর্মাধ্যক্ষ দেবব্রত দাস জানান, এগরা ১ ব্লকের চাটলা থেকে বহলিয়া পর্যন্ত ৪.২ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রাস্তাটি পাকা করার জন্য ৩ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এগরার বিধায়ক সমরেশ দাস, এগরা ১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি অমিয় রাজ ও রামনগর ১ পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ খালেক কাজী প্রমুখ।

গাড়ি উল্টে পুকুরে, যুবকের মৃত্যু চাঁইপাটে

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়ি পুকুরে উল্টে যাওয়ায় মৃত্যু হল এক যুবকের। মৃতের নাম নিরঞ্জন দোলই (২৭)। সোমবার দাসপুর থানার চাঁইপাটে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। মৃতের বাড়ি হুগলির খানাকুলে। আহত হয়েছেন আরও তিন জন। আহতদের স্থানীয় একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, নিরঞ্জনবাবুর দিদির বাড়ি দাসপুরের বেনাই গ্রামে। নিরঞ্জনবাবুর দিদি-জামাইবাবু মুম্বইতে থাকেন। এ দিন ভোরে ট্রেনে করে তাঁরা খড়্গপুর স্টেশনে নামেন। নিরঞ্জনবাবু এ দিন দিদি জামাইবাবুকে আনতে বাড়ি থেকে গাড়ি করে খড়্গপুরে যান। পরে দিদি, জামাইবাবু-সহ ভাগ্নেদের নিয়ে তিনি বেনাই গ্রামে দিদির বাড়ি যাচ্ছিলেন। চাঁইপাটের কাছে ওই গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার ধারে পুকুরে উল্টে গেলে ঘটনাস্থলেই নিরঞ্জনবাবুর মৃত্যু হয়। স্থানীয় বাসিন্দারাই জলে নেমে গাড়ির চালক-সহ চার জনকে উদ্ধার করে। পরে পুলিশ এসে গাড়িটি পুকুর থেকে তোলার ব্যবস্থা করে। মৃতদেহটি ময়না-তদন্তের জন্য ঘাটাল মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বিপ্লবী স্মরণ



বিমল দাশগুপ্ত।—নিজস্ব চিত্র।

বিপ্লবী বিমল দাশগুপ্তের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হল মেদিনীপুরে। সোমবার কলেজ মাঠের কাছে বিপ্লবীর মূর্তিতে মাল্যদান করে শ্রদ্ধা জানান অনেকে। এ দিন ছিল বিমল দাশগুপ্তের ১৫ তম প্রয়াণ দিবস। ২০০০ সালের ৩ মার্চ তাঁর মৃত্যু হয়। ১৯১০ সালের ২৯ এপ্রিল অধুনা বাংলাদেশের বরিশাল জেলার বাশন্তা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। পরবর্তীকালে দীনেশ গুপ্তর কাছ থেকে দীক্ষা নিয়ে ‘বেঙ্গল ভলেন্টিয়ার্স’-এ যোগ দেন। ১৯৩১ সালের ৭ এপ্রিল তৎকালীন মেদিনীপুরের জেলাশাসক জেমস্ পেডিকে গুলি করে মারেন তিনি। পরে অবশ্য তিনি ধরা পড়ে যান। জেলাশাসককে খুনের দায়ে তাঁর বিচার হয়। ওই বিচারে তাঁর কারাদণ্ড হয়। এ দিন বিভিন্ন সংগঠনের পাশাপাশি পরিবারের সদস্যরাও তাঁকে স্মরণ করেন, শ্রদ্ধা জানান।

শিক্ষক সংগঠনের সম্মেলন পূর্বে

পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল কংগ্রেস প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠনের কাঁথি পূর্ব চক্রের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হল রবিবার। এ দিন দেশপ্রাণ ব্লকে আয়োজিত সম্মেলনে সম্পাদকীয় প্রতিবেদন পাঠ করেন চক্র সম্পাদক বলাই পড়্যা। সম্মেলনে উপস্থিত নেতৃবৃন্দ প্রাথমিক শিক্ষকদের পঠন-পাঠনে আরও দায়িত্বশীল হওয়ার পাশাপাশি এলাকার সব শিশু যাতে বিদ্যালয়ে যায় সেদিকেও নজর রাখার কথা বলেন। উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক বনশ্রী মাইতি, জেলা শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ মামুদ হোসেন, দেশপ্রাণ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি তরুণ জানা।

প্রস্তুতি বৈঠক

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কাঁথি কেন্দ্র থেকে স্থানীয় কোনও নেতাকে প্রার্থী করার দাবি জানানোর সিদ্ধান্ত নিল কংগ্রেস। রবিবার কাঁথির রাও রিক্রিয়েশন ক্লাবে আয়োজিত কংগ্রেসের এক প্রস্তুতি বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে কাঁথি মহকুমা কংগ্রেস সভাপতি গঙ্গারাম মিশ্র জানিয়েছেন। লোকসভা নিবার্চনে এককভাবে কংগ্রেসের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার বিষয়ে একমত হওয়া ছাড়াও দলের সাংগঠনিক বিষয় নিয়েও বৈঠকে আলোচনা হয়।



Tags:
Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement