• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ভুল চিকিৎসায় শিশু-মৃত্যুর অভিযোগে বিক্ষোভ

Agitation
চিকিৎসকের বাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ গ্রামবাসীর। নিজস্ব চিত্র

ভুল চিকিৎসায় শিশুর মৃত্যুর অভিযোগে এক হাতুড়ে চিকিৎসকের বাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখালেন মৃত শিশুর পরিবার সহ স্থানীয় বাসিন্দারা।

রবিবার সকালে ভগবানপুরে বেতুলিয়াচক গ্রামে ওই ঘটনার পর থেকেই এলাকা থেকে বেপাত্তা অভিযুক্ত অভিজিৎ পাত্র। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উত্তেজিত জনতার বিক্ষোভ থেকে অভিযুক্তর স্ত্রীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। তবে এ দিন রাত পর্যন্ত মৃত শিশুর পরিবারের পক্ষ থেকে কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি বলে ভগবানপুর থানার পুলিশ জানিয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ভগবানপুর কাঁকরা গ্রাম পঞ্চায়েতের বেতুলিয়াচকের বছর পঞ্চান্ন অভিজিৎ পাত্র এলাকায় হাতুড়ে চিকিৎসক বলে পরিচিত। দীর্ঘদিন ধরে নিজের বাড়িতে রোগী দেখতেন তিনি। শনিবার রাতে বলরামচক গ্রামের শেখ রকি নামে দেড় বছরের একটি শিশু মামার বাড়ি লালপুরে বেতুলিয়াচকে আসে। শিশুটির পরিবারের দাবি, ভোর রাতে সাড়ে চারটে নাগাদ প্রচণ্ড শ্বাসকষ্ট হতে থাকে তার। বেতুলিয়া গ্রামেই হাতুড়ে চিকিৎসক অভিজিতের কাছে শিশুটিকে নিয়ে যান পরিবারের লোকেরা। তাঁদের অভিযোগ, শিশুটির অ্যালার্জি জনিত সমস্যা ছিল। প্রথমে ওই হাতুড়ে তার চিকিৎসা করতে অস্বীকার করেন। পরে অনুরোধ করায় চিকিৎসায় রাজি হন। কিন্তু অক্সিজেন এবং ইঞ্জেকশন দেওয়ার কিছুক্ষণ পরে তার মৃত্যু হয়। এর  পরেই ভুল চিকিৎসার অভিযোগ তুলে রবিবার সকাল থেকে অভিযুক্তর বাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ শুরু করে এলাকার কয়েকশো বাসিন্দা ও মৃত শিশুর পরিবারের লোকজন। অভিযুক্তকে গ্রেফতারের দাবি তোলে বিক্ষোভকারীরা। 

অভিযুক্ত অভিজিতের দাদা রমেন পাত্র দাবি করেন, ‘‘ওঁরা শিশুটিকে ভাইয়ের কাছে আনার পরে রোগীর অবস্থা বেগতিক বুঝে চিকিৎসা করতে রাজি হয়নি ভাই। তাকে দ্রুত  হাসপাতালে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। কিন্তু শিশুটির পরিবার কান্নাকাটি করে অনুরোধ করলে ভাই শিশুটিকে অক্সিজেন দেয়। কিছুক্ষণ পরে সে মারা যায়।’’  

 বিক্ষোভের খবর পেয়ে গ্রামে যায় পুলিশ। বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে বাড়ি থেকে অভিযুক্ত হাতুড়ের স্ত্রীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। মৃত শিশুর দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়।

ভগবানপুর থানার পুলিশ জানান ঘটনায় এখনো পর্যন্ত থানায় ডাক্তারের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি। অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু হয়েছে।    

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন