• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নবান্নে পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠকে মমতা

আইসোলেশনে পাঠানো হল আরও একজনকে

Coorna
প্রতীকী ছবি।

করোনা মোকাবিলায় জেলাগুলি ঠিক কী পরিস্থিতিতে রয়েছে, তা খতিয়ে দেখতে বিভিন্ন জেলাশাসক, স্বাস্থ্য কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

পূর্ব মেদিনীপুরের এগরায় করোনা আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। সোমবার নবান্ন থেকে ভিডিয়ো কনফারেন্সে করা বৈঠকে  মমতা এগরা নিয়ে ‌আলাদা করে কিছু না বললেও করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসকের ভূমিকার প্রশংসা করেন।

অন্যদিকে, এগরায় বিয়েবাড়িতে আসা রাজ্যের করোনা আক্রান্ত দশম ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছিলেন, এমন আরও একজনের অসুস্থতা ধরা পড়েছে সোমবার। এগরা শহরের বাসিন্দা ওই ব্যক্তিকে এদিন সকালে এগরা সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। তাঁর জ্বর ও কাশি রয়েছে। ওই ব্যক্তি আপাতত আইসোলেশনে রয়েছেন।

এগরার যে বিয়েবাড়ি নিয়ে বর্তমানে এত চর্চা, সেই বিয়েবাড়িতে হাজির আরও দু’জনের শরীরে ইতিমধ্যে করোনার উপস্থিতি ধরা পড়েছে। আগে ওই বিয়েবাড়িতে হাজির ১৩ জনকে সুপার স্পেশ্যালিটতে রাখা হয়েছিল। দু’জনের করোনা ধরা পড়া, তাঁদের বেলেঘাটা আইডিতে রবিবার স্থানান্তরিত করা হয়েছিল। এর পরে ওই রাতে আবার নতুন করে চার জনকে আইসোলেশনে রাখা হয়। সোমবার আরও এক ব্যক্তিকে আইসোলেশনে রাখায় সংখ্যাটা বেড়ে হয়েছে ১৬। 

জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, এগরা সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতাল ছাড়াও হলদিয়া মহকুমা হাসপাতালে সোমবার ৭ জনকে আইসোলেশনে রাখার ব্যবস্থা হয়েছে। এই হাসপাতালে আগেও দু’জনকে আইসোলেশন রাখা হয়েছিল।তবে দুজনেরই লালারসের নমুনা পরীক্ষায় নেগেটিভ রিপোর্ট এসেছে। সোমবার পাঁশকুড়া সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে দু’জনকে আইশোলেশনে রাখা হয়েছে। জেলা মুখ্যস্বাস্থ্য আধিকারিক নিতাইচন্দ্র মণ্ডল বলেন, ‘‘এগরা, হলদিয়া ও পাঁশকুড়া হাসপাতালে আইসোলেশনে থাকা মোট ১৪ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য সোমবার কলকাতায় পাঠানো হয়েছে।’’ 

এছাড়া, এগরায় বিয়ে বাড়িতে যোগ দেওয়া যে ৫৭২ জনকে গৃহ পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল, সোমবার ফের তাঁদের এগরা ঝাঁটুলাল হাইস্কুলে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন