• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ভিন্ রাজ্য ফেরত কত, পুর-সমীক্ষা

labours
প্রতীকী চিত্র।

ভিন্ রাজ্য ফেরত ঠিক কতজন এখন মেদিনীপুর শহরে রয়েছেন? নিশ্চিত হিসেব নেই স্থানীয় প্রশাসনের কাছে। শুধু ভিন্ রাজ্য ফেরতদের চিহ্নিত করাই নয়, তাঁরা গৃহবন্দি (হোম কোয়রান্টিন) রয়েছেন কি না, তা দেখাটাও জরুরি। না থাকলে তাঁদের গৃহবন্দি থাকতে বাধ্য করাও দরকার। সবদিক দেখে শহরে বাড়ি বাড়ি সমীক্ষা শুরু হল।

বৃহস্পতিবার থেকে পুরসভার উদ্যোগে এই সমীক্ষার কাজ শুরু হয়েছে। পুরসভার স্বাস্থ্যকর্মীদের নিয়ে কয়েকটি দল গঠন করা হয়েছে। দলগুলি শহরের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে বাড়ি বাড়ি সমীক্ষা শুরু করেছে। পুর-প্রশাসক তথা মহকুমাশাসক (সদর) দীননারায়ণ ঘোষ মানছেন, ‘‘ভিন্ রাজ্য ফেরত কতজন এখন মেদিনীপুর শহরে রয়েছেন তার সঠিক হিসেব নেই। সেই হিসেব রাখার সব রকম চেষ্টা হচ্ছে। এ জন্য শহরে বাড়ি বাড়ি সমীক্ষার কাজও শুরু হয়েছে।’’ পুরসভা সূত্রে খবর, ইতিমধ্যে নানা সূত্র মারফত পুরসভার কাছে ভিন্ রাজ্য ফেরতদের সম্পর্কে কিছু তথ্য এসেছে। কোথায় কোথায় তাঁরা রয়েছেন, ওই সূত্রগুলি সে খবরই দিয়েছে। বিভিন্ন সূত্র থেকে আসা খবরগুলি যাচাই করা হচ্ছে। এ জন্যও পুরসভার একটি দলকে মাঠে নামানো হয়েছে। স্বাস্থ্য দফতরের দলও সহযোগিতা করছে। পাশে রয়েছে পুলিশও।  

সূত্রের খবর, অনেকে অবশ্য স্বীকার করতে চাইছেন না যে, তাঁদের বাড়িতে ভিন্ রাজ্য ফেরত কেউ রয়েছেন বলে। দু’দিন আগে স্বাস্থ্য দফতরের একটি দল শহরতলির কুইকোটায় গিয়েছিল। দলটি জানতে চায়, বাড়িতে ভিন্ রাজ্য ফেরত কেউ রয়েছেন কি না। বাড়ির মালিক অবশ্য জানিয়ে দেন, তাঁর বাড়িতে এমন কেউ নেই। জেলার এক স্বাস্থ্য আধিকারিকের কথায়, ‘‘ভিন্ রাজ্য ফেরতদের খোঁজে আমরা তো আর বাড়িতে ঢুকে তল্লাশি চালাতে পারি না। মানুষজন সচেতন না হলে কিছু করার নেই।’’ তবে পাশাপাশি তাঁর দাবি, ‘‘তবে ওটা বিচ্ছিন্ন ঘটনা। অনেকেই এখন সচেতন হয়েছেন। জানাচ্ছেন, তাঁদের বাড়িতে ভিন্ রাজ্য ফেরত ছেলেমেয়ে রয়েছে। এবং ছেলেমেয়েকে একটি নির্দিষ্ট ঘরেই তাঁরা রেখেছেন।’’

বিদেশ থেকে কতজন শহরে ফিরেছেন, তার হিসেব অবশ্য স্থানীয় প্রশাসনের কাছে রয়েছে। এক সূত্রে খবর, মেদিনীপুর শহরে এখন বিদেশ ফেরত ২১ জন রয়েছেন। এঁদের একাংশ আমেরিকা, চিন, সিঙ্গাপুর, বাংলাদেশের মতো দেশ থেকে ফিরেছেন। ওই সূত্রে খবর, এই ২১ জনকেই হোম কোয়রান্টিনে রাখা হয়েছে। জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকেরও দাবি, ‘‘বিদেশ ভ্রমণের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত সকলেই হোম কোয়রান্টিনে রয়েছেন।’’ 

প্রশাসন সূত্রে খবর, এখন পর্যন্ত ভিন্ রাজ্য থেকে ১৯,১৯৪ জন পশ্চিম মেদিনীপুরে ফিরেছেন। এরমধ্যে ৩০০-৩৫০ জন মেদিনীপুর শহর- শহরতলির বাসিন্দা হতে পারেন। সমীক্ষা চালিয়ে এঁদেরই নাম-ঠিকানার ঠিকঠাক খোঁজ পাওয়ার চেষ্টা করছে পুরসভার দলগুলি।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন