• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দুর্যোগ মোকাবিলায় তৈরি বন্দরও

Cyclone
প্রতীকী ছবি।

আছড়ে পড়তে চলেছে আমপান। সেইজন্যই আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হল হলদিয়া বন্দরে। মঙ্গলবার বন্দরের বাইরে অপেক্ষমাণ দু’টি জাহাজকে বন্দরে ঢোকানো হয়। মঙ্গলবার ও বুধবার বন্দরে কোনও জাহাজ চলাচল করবে না এবং জাহাজে কোনও মাল ওঠানো-নামানো হবে না বলে বন্দর সূত্রে জানানো হয়েছে।

জাহাজ হ্যান্ডলিং করার যে যন্ত্রগুলি বন্দরে রয়েছে সেগুলিকেও মোটা দড়ি দিয়ে বাঁধার কাজ চলছে। করোনা আতঙ্কে সমস্ত কাজকর্ম সামাজিক দূরত্ব মেনেই করা হচ্ছে বলে বন্দর সূত্রে খবর। বন্দরের আধিকারিক অভয় মহাপাত্র বলেন, ‘‘ঝড়ের জন্য সমস্ত যাবতীয় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। বুধবার সকাল ৬টা পর্যন্ত আংশিকভাবে জাহাজে মাল ওঠানো-নামানোর কাজ চলবে। তারপরে সব বন্ধ থাকবে।

এদিকে শিল্পশহর হলদিয়ার ২২টি শিল্পসংস্থার কাছে দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের তরফে রাসায়নিক নিরাপত্তাজনিত কী কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে তা জানতে চাওয়া হয়েছে।  পশ্চিমবঙ্গ দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের আশঙ্কা, সঠিক সতর্কতামূলক ব্যবস্থা না নেওয়া হলে লিকেজ বা অন্য দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। সে ক্ষেত্রে বিশাখাপত্তমের মতো দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে। হলদিয়া এনার্জি লিমিটেডের কর্মকর্তা সোমনাথ দত্ত বলেন, ‘‘রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের চিঠি পেয়েছি। যাতে রাসায়নিকজনিত কোনও দুর্ঘটনা না ঘটে সে জন্য সমস্ত পদক্ষেপ করা হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় সব রকম সর্তকতা অবলম্বন করা হয়েছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন