• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মৎস্যজীবীদের ক্ষতি ১১৩ কোটির   

Fisherman
প্রতীকী ছবি

ঘূর্ণিঝড় ‘আমপানে’ জেলায় মৎস্যজীবীদের বাড়িঘর এবং মাছ চাষ মিলিয়ে ১১৩ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা ক্ষতি হয়েছে বলে জানাল জেলা মৎস্য দফতর। 

জেলা মৎস্য দফতরের প্রাথমিক হিসাব অনুযায়ী, দু’হাজার ৭২৭ হেক্টর জমির জলাশয়ে মিষ্টি জলের মাছ চাষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আর্থিক হিসাবে ওই ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৩১ কোটি ৩৫ লক্ষ টাকা। এক হাজার ৭৫৮ হেক্টর জমির জলাশয়ে নোনা জলের মাছ চাষ নষ্ট হয়েছে। সেই ক্ষতির পরিমাণ ২৫ কোটি টাকা। বড় পোনা মাছ ক্ষতি হয়েছে চার হাজার ৩৯৭ টন। যার দাম প্রায় ৩৬ কোটি টাকা এবং ছোট পোনা মাছ ক্ষতি হয়েছে প্রায় ৬ কোটি টাকার। 

এছাড়া, তিন হাজার ১২০ জন মৎস্যজীবীর বাড়ি সম্পূর্ণ এবং চার হাজার ২২৬ জন মৎস্যজীবীর বাড়ি আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেই ক্ষতির পরিমাণ ১৫ কোটি টাকা। মাছ ধরার জাল-সহ অন্য সরঞ্জাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৪০ লক্ষ টাকার। সব মিলিয়ে  ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ১১৩ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা। জেলা  মৎস্য দফতরের অতিরিক্ত অধিকর্তা সৌরিন্দ্রনাথ জানা শনিবার জেলাপরিষদের কাছে মৎস্যজীবীদের এই ক্ষয়ক্ষতির রিপোর্ট জমা দিয়েছেন। 

জেলাপরিষদের মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ কর্মাধ্যক্ষ আনন্দময় অধিকারী বলেন, ‘‘ঘূর্ণিঝড়ের ফলে জেলার সর্বত্র পুকুর এবং বড় জলাশয়ের মাছ চাষের প্রচুর ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া, মৎস্যজীবীদের বাড়ি  এবং মাছ চাষ ও ধরার বিভিন্ন সরঞ্জাম নষ্ট হয়েছে। এ বিষয়ে রাজ্য সরকারের কাছে রিপোর্ট জমা দেওয়া হয়েছে। মৎস্যজীবী ও সাধারণ বাসিন্দাদের জলাশয়ে গাছপালা পড়ে জলের পচন শুরু হয়েছে। জলাশয়ে দূষণ রুখতে চুন, পটাশ সরবরাহের জন্য রাজ্য সরকারকে অনুরোধ করা হয়েছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন